এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব, শ্রমিকদের হাতে সরকারি সাহায্য তুলে দেওয়ার চেষ্টা করি – দাবি রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রীর

আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব, শ্রমিকদের হাতে সরকারি সাহায্য তুলে দেওয়ার চেষ্টা করি – দাবি রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রীর

শিক্ষা থেকে স্বাস্থ্য, অন্ন থেকে বস্ত্র – রাজ্যের মানুষদের সুবিধা দেওয়ার জন্য গত 2011 সালের পর ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বিপুল উন্নয়ন করেছেন। তবে শুধু রাজ্যের একশ্রেণীর মানুষের জন্যই নয়, শ্রমিক থেকে কৃষক সকল শ্রেণীর মানুষদের উন্নয়নের জন্য যে রাজ্য সরকার বদ্ধপরিকর এদিন সেই ব্যাপারে মুখ খুলে রাজ্যের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরলেন রাজ্য শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী জাকির হোসেন।

সূত্রের খবর, এদিন বহরমপুরের এফইউসি মাঠে আয়োজিত শ্রমিক মেলার উদ্বোধনে আসেন শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী। যেখানে হাজির ছিলেন মুর্শিদাবাদ জেলার জেলাশাসক পি উলাগানাথান, জেলা পরিষদের সভাধিপতি বৈদ্যনাথ দাস সহ অন্যান্য সরকারি আধিকারিকরা। আর এই মঞ্চে বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের সামাজিক সুরক্ষা যোজনার আওতাধীন শ্রমিকদের উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন জাকির হোসেন।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের এই সামাজিক সুরক্ষা যোজনা প্রকল্প যত দ্রুত সম্ভব আমরা উপভোক্তাদের হাতে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করছি। গোটা রাজ্যে এই প্রকল্পের আওতায় মোট 1 কোটি 3 লক্ষ উপভোক্তারা রয়েছেন।” জানা গেছে, এই মুর্শিদাবাদ জেলায় মোট 14 থেকে 15 লক্ষ অসংগঠিত শ্রমিক রয়েছেন।

আর এদিন শ্রমিক মেলার মঞ্চ থেকে চলতি বছরের মধ্যেই জেলার 100% শ্রমিককে সামাজিক সুরক্ষা যোজনায় আওতাভুক্ত করার আশ্বাস দেন জেলা শাসক পি উলগানাথান। অন্যদিকে এদিনের এই শ্রমিক মেলার মঞ্চ থেকে মোট 2 কোটি 99 লক্ষ টাকার অনুদান উপভোক্তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

এদিকে সামাজিক সুরক্ষায় আওতাধীন উপভোক্তাদের দুর্ঘটনাজনিত কারণে মৃত্যু হবে সেই পরিবারের সদস্যদের দু লক্ষ টাকা সরকারি সাহায্য তুলে দেওয়া হয়। পাশাপাশি দুর্ঘটনায় অঙ্গহানি হওয়া সন্দীপ ঘোষকে এদিন এক লক্ষ টাকার সাহায্য তুলে দেয় জেলা প্রশাসন। সব মিলিয়ে মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুরের শ্রমিক মেলার মঞ্চ থেকে ফের রাজ্যের বর্তমান সরকারকে শ্রমিকদরদী সরকার হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করলেন শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী জাকির হোসেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!