এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গুরুতর অসুস্থ প্রাক্তন হেভিওয়েট সাংসদ – দুশ্চিন্তার ছায়া রাজনৈতিক মহলে

গুরুতর অসুস্থ প্রাক্তন হেভিওয়েট সাংসদ – দুশ্চিন্তার ছায়া রাজনৈতিক মহলে

গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় কোলকাতার ই এম বাইপাস চত্বরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন সিপিএম থেকে বিতাড়িত অনিল বসু। বেশ কয়েকদিন ভর্তি থাকার পর এদিন তাকে দেখতে যান সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শ্যামল চক্রবর্তী,প্রাক্তন সাংসদ সুধাংশু শীল,সিটু নেতা প্রশান্ত নন্দী,কান্তি গঙ্গোপাধ্যায় প্রমুখরা। এছাড়া হুগলি জেলা পার্টি অফিসের কয়েকজন নেতারও অনিলবাবুকে দেখতে গিয়েছেন।

রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা গিয়েছে,২০১১ সালের আগে বিধানসভা নির্বাচনের আগে বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে বারবার কটু মন্তব্য করার কারণে দলের তরফ থেকে সাবধান করা হয়েছিল তাঁকে । পরে দলের নেতাদের সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজের আপত্তির বিষয়টি জানাতে গিয়ে  সবার সামনেই বিমান বসুর মতো সিপিএম-এর শীর্ষস্থানীয় নেতার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন তিনি। তার জেরেই তাকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্ট্যাচার্য।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই  ঘটনার পর এদিন শ্যামলবাবু হাসপাতালে অসুস্থ অনিল বসুকে দেখে এসে নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি পোষ্ট করেন। তারপই এটা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয় দলীয় অন্দরে। একইরকম দল থেকে বহিষ্কৃত সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের সদ্য প্রয়াণকে কেন্দ্র যেরকম কাদা ছোঁড়াছুড়ি হল বামেদের মধ্যে তাই অনিল বাবুর উপর শাস্তি তুলে নেওয়া হবে কিনা সেটাই ছিল আলোচনার মূল কেন্দ্রবিন্দু। তবে শ্যামলবাবু এ ধরণের চর্চাকে বিশেষ আমল দিচ্ছেন না। বিষয়টি মানবিকতার দিক থেকেই দেখার পরামর্শ দিলেন শ্যামলবাবু। সোমনাথবাবু স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নিতেন যেরকম আলিমুদ্দিন কর্তারা,সেরকমই অসুস্থ অনিলবাবুকেও দেখতে গিয়েছিল সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শ্যামল চক্রবর্তী। এ নিয়ে কোনো বিতর্কের জায়গা নেই,এমনটাই মনে করছেন বামফ্রন্টের শীর্ষ নেতৃত্বরা।

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!