এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > হরিয়ানায় সরকার গঠন হলেও বিজেপি কিন্তু সওয়ার “আগুনে ঘোড়াতে”! বাড়ছে চাপ

হরিয়ানায় সরকার গঠন হলেও বিজেপি কিন্তু সওয়ার “আগুনে ঘোড়াতে”! বাড়ছে চাপ


লোকসভা নির্বাচনে সারাদেশে গেরুয়া ঝড় প্রত্যক্ষ করা গেছে। তবে সদ্যসমাপ্ত দুই রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনী ফলাফল বিজেপিকে অনেকটাই চাপে রেখেছে। হরিয়ানা এবং মহারাষ্ট্রের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি একা সরকার করতে না পারায় এখন বিভিন্ন মহলে তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

2014 সালের পর দ্বিতীয়বার বিজেপি হরিয়ানায় সরকার গঠন করলেও এবার ভোটের প্রচারে তাদের প্রবল বিরোধি জেজেপির সমর্থন নিয়ে সরকারে আসতে হয়েছে। যা প্রতি মুহূর্তে চিন্তা বাড়াচ্ছে গেরুয়া শিবিরের। কেননা রাজনীতিতে দেখা গেছে, জোটের শরিকদের সাথে সরকার গড়তে হলে সব সময় তাদের চাপের মুখে পড়তে হয় মূল রাজনৈতিক দলকে। ফলে এক্ষেত্রে হরিয়ানায় বিজেপিকে জেজেপির সমস্ত দাবির কাছে মাথা নত করতে হবে।

আর যদি তারা তা না করতে পারে, তাহলে বিজেপির সরকারের থেকে চলে যাওয়ার প্রবণতা বাড়তে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। অন্যদিকে নির্বাচনী প্রচারে হরিয়ানায় জেজেপি বিজেপির বিরুদ্ধে প্রচার করলেও, ভোটের ফলাফলের পর সেই জেজেপিকে নিয়েই বিজেপি সরকার গঠন করায় বিরোধীদের পক্ষ থেকে প্রবল আক্রমণ করা হচ্ছে গেরুয়া শিবিরকে।

পাশাপাশি ক্ষমতা ধরে রাখতে নীতি-নৈতিকতা হারিয়ে ফেলেছে বিজেপি বলেও দাবি করছে একাংশ। কেননা এখানে ফলাফল প্রকাশের পর জেজেপি হরিয়ানার জোট হলে দেখা যায় যে, দুষ্যন্ত চৌতালার বাবা অজয় চৌতালা প্যারোলে মুক্তি পেয়ে গেছেন। যা নিয়ে বিরোধী পক্ষ থেকে দুর্নীতির অভিযোগ তোলার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

কংগ্রেস দাবি করে, ক্ষমতার স্বাদ ধরে রাখতেই এহেন অনৈতিক কাজ করছে হরিয়ানার জোট সরকার। আর বিরোধীদের এই আক্রমণের মুখে পড়ে এখন তীব্র অস্বস্তিতে বিজেপি। তবে শুধু বিরোধীদের আক্রমণ নয়, জেজেপির সমস্ত চাপের কাছে নতি স্বীকার করা নিয়েও এখন অস্বস্তি বজায় রয়েছে গেরুয়া শিবিরের অন্দরে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক মহলের অনেকে বলছেন, এবার হরিয়ানায় কংগ্রেস খুব একটা খারাপ ফলাফল করেনি। ফলে বিজেপি যদি জেজেপিকে নিজেদের বাগে না আনতে পারত, তাহলে তাদের সরকার গড়া অনেকটাই কঠিন হয়ে পড়ত। তাই বর্তমানে হরিয়ানায় জোট সরকার থাকলেও যদি জেজেপি দল বিজেপির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে এবং কংগ্রেসকে সমর্থন দেয়, তাহলে তা বিজেপির কাছে অত্যন্ত সঙ্কটের কারণ হবে বলেই মনে করছে একাংশ।

এই সমস্ত আশঙ্কাকে নিয়েই এখন হরিয়ানায় সরকার চালাতে হচ্ছে ভারতীয় জনতা পার্টিকে। দ্বিতীয়বারের জন্য মনোহরলাল খাট্টার মুখ্যমন্ত্রী হলেও শরিক দলের চাপ কিভাবে সামলান, তার দিকে নজর রয়েছে সকলের। তবে অনেকেই বলছেন, কিছুদিনের মধ্যেই অবস্থার পরিবর্তন ঘটবে এবং জেজেপি থেকে অনেক বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দেবেন।

কিন্তু রাজনীতিতে কখন কি হয়, তা নিশ্চিত করে বলা যায় না। তাই বর্তমান যে পরিস্থিতি, সেই পরিস্থিতিতে বিজেপিকে যে প্রতিমুহূর্তে অগ্নি পরীক্ষা দিতে হচ্ছে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত গোটা রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!