এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের দুর্নীতি সামনে আনব, মন্ত্রীসভার অর্ধেক জেলে যাবে: কৈলাশ

মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের দুর্নীতি সামনে আনব, মন্ত্রীসভার অর্ধেক জেলে যাবে: কৈলাশ

গতকাল সংহতি দিবসে মেয়ো রোডের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তীব্র ভাষায় আক্রমন করেন বাংলায় বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে। মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে দুর্নীতিপরায়ণ আখ্যা দিয়ে প্রশ্ন তোলেন, মধ্যপ্রদেশে দুর্নীতির জন্য কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে কোনওদিনও গ্রেফতার করা হয়েছিল? তৃণমূল একটা স্বচ্ছ দল, দুর্নীতিতে ভরা দল হল বিজেপি। মধ্যপ্রদেশের দুর্নীতির জন্য মেয়রের পদ ছেড়ে দিতে হয় কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে, কিন্তু তাঁকে গ্রেফতার করা হয়নি। কিন্তু আমি দেখিয়েছি রাজ্যে দল শাসনক্ষমতায় থাকলেও, তৃণমূল নেতা-কর্মীরা অন্যায় করলে ছেড়ে কথা বলি না, কোনওদিন অন্যায়ের সঙ্গে আপোশ করি না।
আর সেই প্রসঙ্গেই এবার মুখ খুললেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়। তিনি জানান, আমি ২০০০ সালে মেয়র ছিলাম। এতদিন পরে কেন সেই দুর্নীতি প্রসঙ্গ টেনে আনছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার আমিও মমতার পরিবারের দুর্নীতি প্রকাশ্যে নিয়ে আসব। ১৭ বছর পর হঠাত্‍ করে তাঁর কেন মনে পড়ল ওই দুর্নীতির কথা। দুর্নীতি যদি হবে মাঝে তো কংগ্রেসের সরকার ছিল। তখনই আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারত। তা তো নেওয়া হয়নি। কোনও দুর্নীতিই প্রমাণিত হয়নি। আর এরপরেই কার্যত হুঙ্কার ছাড়েন তিনি মুখ্যমন্ত্রী তথা শাসকদলের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, মমতার ওই ধমকে আমি ভয় পাই না। যে কোনও সংস্থাকে দিয়ে তদন্ত করাতে পারেন। আমি তৈরি। কিন্তু আমি মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের দুর্নীতি সামনে আনব এবার, আপনি তৈরি তো! আপনার মন্ত্রিসভার অর্ধেক সদস্য জেলে যাবে। সব কাগজপত্র আমার কাছে আছে। এখন থেকে তৈরি হন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!