এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > চাকরি > দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান – শীঘ্রই প্রকাশিত হতে চলেছে গ্রূপ-ডি পরীক্ষার ফল, জেনে নিন বিস্তারিত

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান – শীঘ্রই প্রকাশিত হতে চলেছে গ্রূপ-ডি পরীক্ষার ফল, জেনে নিন বিস্তারিত

পরীক্ষার্থীদের চিন্তার অবসান ঘটিয়ে  খুব শীঘ্রই প্রকাশিত হতে চলেছে গ্রুপ ডি পরীক্ষার ফলাফল। দীর্ঘদিন ধরে আইনি জটিলতায় আটকে থাকার কারণে ফলাফল প্রকাশ করা যাচ্ছিল না। তবে এখন ফল প্রকাশের জন্য পুরোপুরি তৈরি গ্রুপ-ডি রিক্রুটমেন্ট বোর্ড। নবান্নের সবুজ সংকেত পেলেই অবিলম্বে ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে ফলাফল। www.wbgdrb.in সাইটে গিয়ে ফল দেখতে পাবেন পরীক্ষার্থীরা। কিন্তু কী কারণে আটকে ছিল গ্রুপ ডি পরীক্ষার ফলাফল? আসুন জেনে নেওয়া যাক।

২৪ লক্ষ ৮৭ হাজার পরীক্ষার্থী আবেদন করেছিল ৬ হাজার গ্রুপ-ডি শূন্য পদের জন্য। এদের মধ্য থেকে ১৯ হাজার ৪৪৯ জন ইন্টারভিউ-এর জন্য ডাক পেয়েছিল। ২৬ এপ্রিল শেষ হয় ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া। তারপরই কিছু পরীক্ষার্থী সরকারি চাকরিতে এক্সজেনটেড ক্যাটাগরিতে সংরক্ষিত ৫১৩ টি শূন্যপদ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন  এবং স্যাটে মামলাও করেন এই ইস্যুতে। এই সংরক্ষিত ক্যাটাগরিতে ১৮০০ গ্রুপ-ডি পদে চাকরি দিতে হবে, এটাই ছিল তাঁদের দাবী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

তবে বোর্ডের বক্তব্য,১০০ পয়েন্টে রোস্টার মেনেই সংশ্লিষ্ট ক্যাটাগরিতে ৫১৩ টি শূন্যপদ রাখা হয়েছে। কিছু ফেল করা পরীক্ষার্থীরা মামলা করে গোটা পক্রিয়াকে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন না। এটা পুরোপুরি অবৈধ। এমনটাই বলেছেন স্যাটের চেয়ারম্যান তথা জুডিশিয়াল মেম্বার পি রমেশ কুমারের বেঞ্চ। ৯ আগষ্ট দু’পক্ষের যুক্তি এবং পাল্টা যুক্তির জেরে স্যাটের দুই বিচারক রায়দান স্থগিতও রেখেছিলেন। তবে এদিন মামলাকারীদের বক্তব্য খারিজ করে দিয়ে অবিলম্বে ফল প্রকাশ করায় পথ সহজ করে দিল স্যাট।

যদিও মামলাকারীদের তরফে এদিন স্যাটের রায়ের রায়ের সার্টিফিকেটের কপি চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। পরবর্তী পর্যায়ে স্যাটের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টের দোরগোড়ায় যেতে পারে মামলাকারীরা, এমন সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তবে দেশের সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশকে উল্লেখ করেই এদিন রায় দিয়েছে স্যাট। কাজেই মামলাকারীরা অভিযোগ আনলেও তাতে লাভ হবে কিছু।  নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বাধা সৃষ্টি কোনোভাবেই হবে না আর এমনটাই আশা করা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!