এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম গ্রন্থনই এবার প্রশাসনের বড় কাজ করতে চলেছেন

উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম গ্রন্থনই এবার প্রশাসনের বড় কাজ করতে চলেছেন

কলাবিভাগ নিয়ে পড়াশুনো করা জলপাইগুড়ি জিলা স্কুলের গ্রন্থন সেনগুপ্ত ছিনিয়ে নিল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রথম স্থানটি। এ খবর প্রকাশ্যে আসায় গোটা জেলায় হৈ হৈ পড়ে যায়। আনন্দে ভাসে এলাকাবাসী। আর এই সফলতার পথ বেয়েই তাঁর কাঁধে এবার শিলিগুড়ি পুরনিগমের তরফ থেকে আসতে চলেছে একটি গুরু দায়িত্ব।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এদিন গ্রন্থনের বাড়িতে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে হাজির হন খোদ শিলিগুড়ির মেয়র অশোক ভট্টাচার্য। সেখানে তাঁর প্রশংসা করে বলেন যে কলাবিভাগ নিয়ে পড়াশুনো করে রাজ্যের ভিতর প্রথম হয়ে গ্রন্থন ইতিহাসের পাতায় নিজের নাম লিখলো। এরকম নজির আগে দেখা যায়নি এ রাজ্যে। এখনকার ছেলেমেয়েরা সব ইঞ্জিনিয়ার হতে চায় বিজ্ঞান নিয়ে পড়াশুনো করে। সেখানে গ্রন্থন ব্যাতিক্রমী এবং তার সঙ্গে বহুমুখী প্রতিভার অধিকারীও। তাই তাঁর প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে শিলিগুড়ি পুরনিগম বিভিন্ন পরিবেশ সচেতনতামূলক কাজ করতে চায়। সে প্রস্তাব দিতেও গ্রন্তনের কাছে যাওয়া অশোকবাবু। এর আগে ক্রিকেটার ঋদ্ধিমান সেনগুপ্তও পুরনিগমের এধরনের কাজে যুক্ত ছিলেন বলেও জানালেন তিনি।

মেয়র জানান যে দূষণমূক্ত শিলিগুড়ি গড়ার স্বপ্ন তাঁদের। ইদানিং এলাকায় প্লাস্টিক দূষণ বেড়েছে অনেক। সে নিয়ে মানুষের ভিতর সচেতনতা বাড়াতে গ্রন্থনকে পাশে চাইছেন তিনি। মেয়রের প্রস্তাব শুনে গ্রন্থন হেসে জানান যে সমাজ সচেতনতার কাজে তিনি নিশ্চয়ই পাশে থাকবেন এবং আনন্দের সঙ্গেই কাজ করবেন। তিনি আরো জানালেন যে তাকে দিয়ে যদি সমাজের কোনো উপকার করানো যায় তবে তিনি নিজেকে ধন্য বলেই মনে করবেন। এবং সে কাজ এগিয়ে এসে করবেন বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!