এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > শুরুর এক বছরের মধ্যেই ‘চলছে না বলে’ ঘুরপথে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পথে সরকারি এই প্রকল্প? বাড়ছে জল্পনা

শুরুর এক বছরের মধ্যেই ‘চলছে না বলে’ ঘুরপথে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পথে সরকারি এই প্রকল্প? বাড়ছে জল্পনা

রাজ্য সরকারের প্রকল্প চালু হওয়ার এক বছরের মধ্যেই বন্ধ করে দেওয়ার ইঙ্গিত দিল প্রশাসন। গতকাল নৈহাটির ঐকতান থেকে বাস টার্মিনাসের উদ্বোধন করতে এসে পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানালেন,অনলাইনে ৫০ শতাংশ টিকিট বুকিং না হলে বাংলাশ্রী এক্সপ্রেস বাস চালানো কিছুতেই সম্ভব হবে না। যদিও বাংলাশ্রী বাস এখনো কোথাও বন্ধ করা হয়নি,তবে যেখানে ৫০ শতাংশ ও তার বেশি সিট অনলাইনে বুকিং হচ্ছে সেখানেই শুধু বাংলাশ্রী বাস চালানো হচ্ছে বলে জানালেন তিনি। এরপর সাফ কথায় বললেন,গাড়ি চালানোর তেলের দাম সরকার দেবে না।

সেটা গাড়ি চালক সংস্থাকেই তুলতে হবে৷ এটা বলার পর প্রসঙ্গে প্রাক্তন রাজ্যসরকারকে খোঁচা দিয়ে বলেন,”বাম আমলের মতো নিগমকে দেউলিয়া করার কোনও ইচ্ছা আমাদের নেই।” তবে লোকসভা ভোটের মুখে এসে রাজ্যসরকারের জনস্বার্থমুখী একটি প্রকল্প বন্ধের ইঙ্গিত রাজ্যবাসীকে অসন্তুষ্ট করতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। এর প্রভাব তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্কে পড়বে কিনা তা নিয়েও সংশয় তৈরি হয়েছে বিভিন্নমহলে।

জেলা সূত্রের খবর,শহরের ক্রমবর্ধমান যানজট এড়াতে নৈহাটবাসীদের দীর্ঘদিনের দাবী মেনে সম্প্রতি শহরে বাস টার্মিনাস তৈরির কাজ সম্পূর্ণ হল। স্থানীয় বিধায়ক পার্থ ভৌমিকের উদ্যোগে পরিবহন দপ্তরের সহায়তায় অবশেষে মুখে হাসি ফুটল নৈহাটিবাসীর। এদিন সেই নতুন বাস টার্মিনাসের উদ্বোধন করলেন পরিবহন মন্ত্রী। এই বাসস্ট্যান্ড থেকে একাধিক রুটের বাস ছাড়ার পাশাপাশি নৈহাটি-দীঘা, নৈহাটি-তারাপীঠ, নৈহাটি-যাদবপুর, নৈহাটি-হাওড়া হয়ে নবান্ন, নৈহাটি-বনগাঁ রুটের সরকারি বাস ছাড়বে বলেই জানালেন মন্ত্রী।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

নৈহাটি পুরসভার চেয়ারম্যান অশোক চট্টোপাধ্যায় এ প্রসঙ্গে জানালেন,আগে নদীয়া মিলের কাছে থেকে ডিএন-৫, ৭৩, ৮৭-এ, নৈহাটি-শিলিগুড়ি, নৈহাটি-দীঘা প্রাইভেট বাস ছাড়ত। এর ফলে শহরের যানজট হত। কিন্তু এবার নতুন বাস টার্মিনাস চালু হওয়ার ফলে এসব রুটের বাস শহর থেকেই ছাড়া হবে। এতে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে হওয়া যানজট থেকে মুক্তি পাবে সাধারণ মানুষ। ৩ কোটি ১৭ লক্ষ টাকা বরাদ্দের বাস টার্মিনাস যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্য অনুযায়ী সবরকম পরিকাঠামো অনুযায়ী তৈরি করা হয়েছে। এর মাধ্যমে শহরবাসীর বহুদিনের স্বপ্ন পূরণ হল বলেই জানালেন পুরসভার চেয়ারম্যান।

অন্যদিকে,বারাকপুর পুলিস কমিশনারেট এলাকায় দুর্ঘটনা এড়াতেও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে পরিবহন দপ্তরের পক্ষ থেকে। আগামীদিনে যাতে এই সংশ্লিষ্ট এলাকায় কোনোরকম দুর্ঘটনা না ঘটে তার জন্যে দেড় কোটি টাকা খরচ করে সিসি ক্যামেরা, সাইনেজ, ট্রাফিক ব্যারিকেড, স্পিড ল্যাডার গান সহ ১২টি জিনিস দেওয়ার আশ্বাস দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। মার্চের মধ্যেই এই টাকা প্রশাসনের তরফ থেকে দেওয়া হবে বলে বলেও জানালেন তিনি।

পরিবহনমন্ত্রী আরো জানান,এলাকার জনপ্রতিনিধিদের প্রস্তাব অনুযায়ী আগামী কালে উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাত,দেগঙ্গায় প্যাসেঞ্জার স্ট্যান্ড করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। এছাড়া করুণাময়ীতে ইন্টারন্যাশনাল বাসস্ট্যান্ড করার পরিকল্পনা রয়েছে। এদিন অনুষ্ঠানে বিধায়ক পার্থ ভৌমিক সহ পুরসভার অধিকাংশ কাউন্সিলার উপস্থিত ছিলেন বলেই জানা গিয়েছে তৃণমূল সূত্রের খবরে।

আপনার মতামত জানান -
Top