এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এবার সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন কলেজ অধ্যক্ষরা, কেন! জেনে নিন বিস্তারিত!

এবার সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন কলেজ অধ্যক্ষরা, কেন! জেনে নিন বিস্তারিত!

 

দীর্ঘদিন ধরেই এরাজ্যের সরকারের বিরুদ্ধে বেতন নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন সরকারি কর্মচারীরা। বকেয়া বর্ধিত বেতন না পাওয়ার ক্ষোভ আগে থেকেই ছিল কলেজের অধ্যক্ষদের মধ্যে। আর এবার কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সংশোধিত বেতনক্রমের আদেশ বেরোনোর পর থেকেই সেই ক্ষোভ আরও বাড়তে শুরু করেছে।

 

কিন্তু কি আছে সেই আদেশনামায়! জানা গেছে, সেই আদেশনামা বলা হয়েছে, স্নাতকোত্তর পঠন-পাঠনের কলেজের অধ্যক্ষদের তুলনায় শুধু স্নাতক পড়ার কলেজের অধ্যক্ষদের ভাতা কম হবে। আর এতেই ক্ষিপ্ত হয়েছেন বেশ কিছু কলেজের অধ্যক্ষরা।

প্রসঙ্গত, অতীতে রাজ্যের সমস্ত কলেজের অধ্যক্ষের পদ প্রফেসর পদের সমান ছিল। কিন্তু সরকারের এই আদেশনামার ফলে স্নাতকোত্তর পাঠের কলেজের অধ্যক্ষ পদ প্রফেসর সমতুল্য বলে গণ্য হবে। তবে অধ্যক্ষ পদে মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও, অধ্যক্ষদের পড়ানোর কাজে ফিরতে হবে। আর তখন তারা শিক্ষক হিসেবে তাদের বেতন পাবেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে এই ব্যাপারে ইতিমধ্যেই সরকারের আদেশের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে শুরু করেছে একাংশ। এদিন এই গোটা বিষয়টি নিয়ে রাজ্য সরকারের দ্বারস্থ হওয়ার কথা জানিয়েছেন নিখিলবঙ্গ অধ্যক্ষ পরিষদের সভাপতি সুবীরেশ ভট্টাচার্য। এদিন তিনি বলেন, “অধ্যক্ষদের বেতনের ফারাকের বিষয়টি প্রযোজ্য হবে অধ্যক্ষ পদে নবাগতদের ক্ষেত্রে।যারা এখনও পদে রয়েছেন, তারা পে প্রটেকশন পাবেন। নতুন যারা অধ্যক্ষ পদে যোগ দেবেন, মেয়াদের নিয়মবিধিও চালু হবে শুধু তাদের ক্ষেত্রে। যারা এখনও অধ্যক্ষ, তাদের জন্য এই নিয়ম নয়। এমন নিয়ম বেঁধে দিয়েছে অধ্যক্ষ পরিষদ। দুটি বিষয় নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনা করবে।এই দুটি নিয়ম যাতে রদ করা যায়, সেটা দেখতে আমরা মন্ত্রীকে অনুরোধ করব।” তবে সরকার এই আদেশনামা জারি করলেও, এখন নিখিলবঙ্গ অধ্যক্ষ পরিষদ আবেদনে সরকার তাদের স্ট্যান্ড পয়েন্ট থেকে পিছিয়ে আসে কিনা, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!