এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > জোট ভেঙেছেন প্রাক্তন রাজ্যপাল! বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে তীব্র জল্পনা শুরু

জোট ভেঙেছেন প্রাক্তন রাজ্যপাল! বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে তীব্র জল্পনা শুরু

অনেক জটিলতার পর অবশেষে সরকার গঠন হয়েছে মহারাষ্ট্রে। তবে এখনও সেই মতো জটিলতা কমেনি। প্রচারে তিনি ফিরে আসবেন বলেছিলেন। ফিরে এসেছেন ঠিকই। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে আর কুর্শি দখল করতে পারেননি। এবার তিনি মহারাষ্ট্রের বিরোধী দলনেতা। বিজেপির দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। সূত্রের খবর, রবিবার তাঁকে বিধানসভার বিরোধী দলনেতা হিসেবে ঘোষণা করেন সেখানকার অধ্যক্ষ নানা পাটোলে।

আর এরপরই সরকারপক্ষের তরফে শিবসেনার মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিরোধী দলনেতাকে অভিনন্দন জানান। আর এরপরই বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী বনাম প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে বিধানসভায় শুরু হয়ে যায় জোর তরজা। অভিনন্দন দিয়ে প্রথমটা শুরু হলেও শেষটা মোটেই মধুর ছিল না। সূত্রের খবর, এদিন অধিবেশনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দেবেন্দ্র ফড়নবিশের কড়া ভাষায় সমালোচনা করেন উদ্ধব ঠাকরে।

তিনি বলেন, “আমি আপনাকে বিরোধী দলনেতা বলব না। বরং আপনাকে দায়িত্ববান নেতা বলব। যদি আপনি সেই সময় আমাদের কাছে ভালো হতেন, তাহলে এসব কিছুই হত না। আমি কখনও বলিনি যে আমি আবার ক্ষমতায় আসব। কিন্তু আমি বিধানসভা এসেছি। আমি এই বিধানসভা এবং মহারাষ্ট্রের মানুষকে আশ্বস্ত করছি যে, আমি মধ্যরাতে কখনও কিছু করব না। মানুষের স্বার্থে কাজ করব।”

তিনি আরও বলেন, “তবে এর পরও আপনার সাথে আমার বন্ধুত্বে কোনো ফাটল ধরবে না। আমি দেবেন্দ্র ফড়নবিশের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। সেকথা আমি কখনও অস্বীকার করব না। আপনি যদি আমাদের কথা শুনতেন, তাহলে আজ আমি বাড়িতে বসে টিভিতে সব কিছু দেখতাম।” বস্তুত, মহারাষ্ট্রের ফলাফল প্রকাশের পর শিবসেনার সাথে বিজেপির জোট করে সরকার হবে বলে মনে করা হলেও সেই শিবসেনার শর্তে রাজি হয়নি গেরুয়া শিবির।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর যার ফলে তাদের জোট ভেঙে গিয়েছে। আর তার পরিবর্তে কংগ্রেস, এনসিপির সঙ্গে জোট করে মহারাষ্ট্রে ক্ষমতা দখল করেছে শিবসেনা। যেখানে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে। এদিন বিজেপির সঙ্গে জোটের ব্যাপারে কথা তুলে ধরতে গিয়ে অতীতের কথা তুলে ধরে দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে কিছুটা কটাক্ষ করলেন উদ্ধব ঠাকরে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

এদিকে দেবেন্দ্র ফড়নবিশ একসময় প্রচারে তিনি আবার বিধানসভায় স্বমহিমায় ফিরে আসবেন বলে দাবি করলেও এদিন তার বিরোধী আসনে বসাকে কটাক্ষ করেছেন জোট সরকারের অনেক নেতাই। যার পাল্টা জবাব দিয়েছেন বিরোধী দলনেতার পদে বসা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। তিনি বলেন, “আমি বলেছিলাম ফিরে আসব। কিন্তু তার জন্য কোনো সময় নির্দিষ্ট করে দিতে ভুলে গিয়েছিলাম।”

তিনি আরও বলেন, “কিন্তু আমি একটি বিষয় বলতে চাই, আপনাদের আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। নির্বাচনে 40% নম্বর পাওয়া দলগুলো সরকার গড়েছে। গণতন্ত্রের অংশ হিসেবে আমরা এটা মেনে নিয়েছি।” এদিকে দেবেন্দ্র ফড়নবিশের এহেন বক্তব্যের পাল্টা জবাব এসেছে শিবসেনার তরফে।

এদিন শিবসেনার মুখপাত্র সামনায় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করেছেন সঞ্জয় রাউত। তিনি বলেন, “অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস এবং শিশুসুলভ মন্তব্য মহারাষ্ট্রে বিজেপিকে ডুবিয়ে দিয়েছে।” সব মিলিয়ে বর্তমান-প্রাক্তনের দ্বন্দ্বে জোটের কথা বারবার ফিরে আসল মহারাষ্ট্র বিধানসভায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!