এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সরকারি কর্মীদের জন্য বেতন নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্যসরকার

সরকারি কর্মীদের জন্য বেতন নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্যসরকার

রাজ্যের সমবায় ব্যাঙ্কগুলোর হাল ফেরাতে নয়া সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন। এবার থেকে সরকারি কর্মীদের বেতন দেওয়া হবে সমবায় ব্যাঙ্কের মাধ্যেমে। এতোদিন কর্মীদের বেতন দেওয়া হত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের মাধ্যমে। সরকারি কর্মী বাড়ি বানাতে বা গাড়ি কিনলে লোনও এই সব ব্যাঙ্ক থেকেই পান। কিন্তু এতে রাজ্যের সমবায় ব্যাঙ্কগুলোর অবস্থার কোনো উন্নতি হচ্ছে না। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার চাইছেন সমবায় ব্যাঙ্কের মাধ্যমেই এই ধরনের লেনদেন হোক। এটা কার্যকর হলে সমবায় ব্যাঙ্কগুলো অবস্থা ফিরবে এবং তাঁরা উপকৃতও হবে। জানা যাচ্ছে, ইতিমধ্যেই নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর এই নির্দেশ পৌছে গেছে সমবায় দপ্তরগুলোতে। সে নির্দেশ পেয়ে কর্মতৎপরতা দেখিয়েছে সমবায় ব্যাঙ্কগুলোও। মুখ্যমন্ত্রীর অনুমোদন পেলেই আগামী দু তিন মাসের ভিতরই এই কর্মসূচি শুরু করা হবে বলেই জানিয়েছে সমবায় দপ্তর। এরপর ওই প্রস্তাব বিভিন্ন মন্ত্রীসভা থেকে পাশ হয়ে আসবে। তারপর সমবায় ব্যাঙ্কগুলোতে খোলা হবে সমস্ত সরকারি কর্মীরই স্যালারি অ্যাকাউন্ট। যে পদ্ধতি অবলম্বন করে সরকারি কর্মীদের রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক থেকে বেতন দেওয়া হয়,সেই একই পদ্ধতি মেনে সমবায় ব্যাঙ্কও তাঁদের স্যালারি দেবে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

সম্প্রতি সমবায় ব্যাঙ্ক সংস্কারের কাজও শুরু করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে প্রায় ৭১০ টি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় প্রথম খোলা হবে এই ব্যাঙ্কের শাখা। গ্রাহকদের বাড়তি সুবিধা দিতে চালু করা হচ্ছে এটিএম পরিষেবা। এরই ভিতর মোবাইল অ্যাপস এবং এসএমএস সচেতনতা চালু হয়ে গিয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পরিষেবার মতো সন্তোষজনক পরিষেবা দেওয়ার মতো ক্ষমতা অর্জন করে ফেলেছে ইতিমধ্যে সমবায় ব্যাঙ্কগুলো। এখনো যেসব জায়গায় এই ব্যবস্থা চালু হয়নি সেখানে অবিলম্বে কাজ শুরু করা হবে বলেই জানিয়েছেন সমবায় দপ্তর। এই পরিস্থিতি চালু হলে সরকারি কর্মীরা যেমন উপকৃত হবে তেমই সমবায় ব্যাঙ্কগুলোর অবস্থা ফিরবে বলেই আশা রাখছেন প্রশাসনের শীর্ষ আমলা সহ সমবায় দপ্তরের আধিকারিকরাও।

এ প্রসঙ্গে মন্তব্য পাওয়া গেছে সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায়ের। তিনি জানান যে বামেদের জামানায় সমবায় ব্যাঙ্কের মৃতপ্রায় অবস্থা ছিল। তবে মমতা ব্যানার্জী ক্ষমতায় আসার পরই সমবায় ব্যাঙ্ক গুলোকে চাঙ্গা করতে বেশ উদ্যোগী হয়েছেন। নেত্রী বলেছিলেন সমবায় ব্যাঙ্কের মাধ্যমে রাজ্যের সরকারি কর্মচারীদের বেতন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। আর তাঁর সেই বলা কথারই বাস্তবায়ন হতে চলেছে এ বছর। আপাতত এই কর্মসূচি গ্রহনের জেরে বেশ চাঞ্চল্য শুরু হয়েচে সমবায় দপ্তরের অন্দরে। অবিলম্বে এ কাজ শুরু করার ব্যাপারে আগ্রহী তাঁরা। এমনটাই জানা যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!