এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > হায় ভারতবর্ষ! ছেলেধরা গুজবে গণপিটুনিতে মৃত্যু এবার গুগলের ইঞ্জিনিয়ারের!

হায় ভারতবর্ষ! ছেলেধরা গুজবে গণপিটুনিতে মৃত্যু এবার গুগলের ইঞ্জিনিয়ারের!

হোয়াটস্যাপে ‘ছেলেধরা’ ভুয়ো খবরের জেরে ত্রিপুরা, মহারাষ্ট্রের পর এবার কর্ণাটকের বিদারে গণপিটুনিতে মৃত্যু হল গুগলের এক সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারের। হাসপাতালে গুরুতর জখম অবস্থায় চিকিৎসা চলছে ৪ জনের, তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা রীতিমত সঙ্গীন। স্থানীয় সূত্রের খবর কাতারের নাগরিক মহম্মদ সালাম সম্প্রতি হায়দ্রাবাদে তাঁর বন্ধু তথা প্রাক্তন গুগল-কর্মী মহম্মদ আজমের বাড়ি বেড়াতে আসেন। আজ সালাম, আজম ও তাঁদের তিন বন্ধু গাড়ি করে লং ড্রাইভে বেরোন। বিদারে পৌঁছে তাঁরা গাড়ি থামান এবং আশেপাশে কিছু শিশু দেখতে পেয়ে তাদের চকোলেট দেন।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এমনিতেই কিছুদিন ধরে বিদারে ছেলেধরা গুজব ছড়ানো বেশ কিছু ম্যাসেজ হোয়াটস্যাপে ঘুরতে থাকায় এলাকাবাসী সন্ত্রস্ত ছিলেন। সেখানে হঠাৎ করে অপরিচিত পাঁচ যুবককে স্থানীয় শিশুদের চকোলেট বিলি করতে দেখে ভিড় বাড়তে থাকে। ওই পাঁচ যুবকের মধ্যে একজন আবার বিদেশী হওয়ায় সন্দেহ আরো বাড়ে এবং সেখান থেকে তীব্র কথা কাটাকাটি শুরু হয়। ওই পাঁচ যুবক প্রথমে নিজেদের নিরাপরাধ প্রমানে কথা চালিয়ে গেলেও অবস্থা বেগতিক দেখে গাড়িতে করে পালিয়ে যায়।

কিন্তু স্থানীয় উত্তেজিত জনতা এরপর বাইকে করে তাদের পিছু ধাওয়া করে। কিছুদূর যাওয়ার পর একটি মোটরবাইকে গাড়িটি ধাক্কা মেরে উল্টে যায়। পিছু ধাওয়া করা জনতা ততক্ষনে টেনে হিঁচড়ে গাড়ি থেকে পাঁচ যুবককে বের করে বেদম প্রহার শুরু করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছাতে পৌঁছাতে ঘটনাস্থলেই গণপিটুনিতে মৃত্যু হয় মহম্মদ আজমের। বাকি চারজনকে উদ্ধার করে পুলিশ চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে কয়েকজন মহিলা সহ এই ঘটনায় মোট ৩২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!