এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > তবে কি “give and take” কেই প্রাধান্য দিলেন তৃণমূল নেতার বক্তব্য ঘিরে জল্পনা

তবে কি “give and take” কেই প্রাধান্য দিলেন তৃণমূল নেতার বক্তব্য ঘিরে জল্পনা

রবিবার বহরমপুরে তৃণমূলের কলেজ শিক্ষক সংগঠন ওয়েবকুপার মুর্শিদাবাদ জেলা সম্মেলন ছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের মুর্শিদাবাদ জেলা সভাপতি সুব্রত সাহা।এদিন তিনি বলেন, ‘‘মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি আছে। তা নিয়ে আমাকে প্রায়ই বলা হয়। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীকে সাংগঠণিকভাবে আমরা কতটা দিতে পারলাম, তাও আমাদের ভেবে দেখা দরকার।আমরা সাংগঠনিকভাবে মুর্শিদাবাদ থেকে তেমন কিছু দিতে পারিনি। তা সত্ত্বেও মুখ্যমন্ত্রী মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ থেকে শুরু করে পানীয় জল প্রকল্প-সহ একাধিক প্রকল্প আমাদের জেলায় দিয়েছেন।”পাশাপাশি বলেন, “২০১১ সালের বিধানসভা ভোটে আমরা শুধুমাত্র সাগরদিঘি আসন দিতে পেরেছিলান। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মাত্র চারটি আসন দিতে পেরেছি।” আর এই নিয়েই জলঘোলা হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।পাশাপাশি বিরোধীরাও এই নিয়ে মুখ খুলেছেন ,সুর ছাড়িয়ে তাদের দাবি তবে কি ভোট দিলেই কাজ হবে অন্যথায় নয় একথাই বলতে চাইলেন সুব্রতবাবু। যদিও বিরোধীদের দাবিকে নাৎসাৎ করে তৃণমূলের বক্তব্য যে উনি বোঝতে চেয়েছেন যে আমাদের জননেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রং দেখে উন্নয়ন করেন না। এখানে তেমন ভোট না পেলেও উন্নয়ন হয়েছে।প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক সাফল্য মেলেনি বলেই কি মুর্শিদাবাদে কলেজ গড়ছে না রাজ্য? এই নিয়ে তিনি বলেন “রাজনৈতিক প্রতিদান দেয়নি বলে বিশ্ববিদ্যালয় হয়নি এটা ঠিক নয়। মেডিক্যাল কলেজ-সহ বহু প্রকল্প রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আমাদের জেলাকে দিয়েছেন। আরও দেবেন।সাথে বলেন, ‘‘আগামী ২০ জানুয়ারির মধ্যে জেলা সফরে আসবেন মুখ্যমন্ত্রী। তখন আপনাদের সঙ্গে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলব।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!