এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ঘাটালমাস্টার প্ল্যান নিয়ে কেন্দ্রের নির্দেশিকায় জল্পনা, চিন্তায় নবান্ন

ঘাটালমাস্টার প্ল্যান নিয়ে কেন্দ্রের নির্দেশিকায় জল্পনা, চিন্তায় নবান্ন

রাজ্যে কয়েক যুগের বাম শাসনের অবসানের পরে ২০১১ সালে রাজ্যের শাসন ক্ষমতায় পরিবর্তন আসে। বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে ক্ষমতায় আসে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। রাজ্যের শাসন ক্ষমতায় পরিবর্তন আসার পরে স্বভাবতই রাজ্যের অনেক অনুন্নত অঞ্চলের উন্নয়নে ব্রতী হয় নব গঠিত সরকার। সেই সময়েই পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটালবাসীকে বন্যার হাত থেকে রক্ষার জন্যে সেচদপ্তরকে একটি জবরদস্ত প্ল্যান তৈরী নির্দেশ দিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০১৪ সালে এই প্ল্যান অনুমোদনের জন্যে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পেশ করা হয়। অবশেষে সেই প্ল্যানের অনুমোদন করল কেন্দ্রীয় জলমন্ত্রক। প্রযুক্তিগতভাবে অনুমোদইত হলেও ১২৩৮ কোটি টাকার এই প্রকল্পে এখনও অবধি কোনো টাকা বরাদ্দ করেনি কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় জলমন্ত্রকের প্রধান সচিব ইউ পি সিং গত সপ্তাহে দিল্লীতে আয়োজিত এক বৈঠকে রাজ্যের সেচদপ্তরের কর্তাদের একথা জানিয়েছেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

কী আছে এই ঘাটাল প্রকল্পে খতিয়ে দেখতে গিয়ে জানা গেলো প্রবল বর্ষায় শীলাবতী নদীর জলোচ্ছ্বাসে এলাকার সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক জনজীবন বহুলাংশে ব্যাহত হয়। ঘাটাল সংলগ্ন চেতুয়া এবং দাসপুর ১ এবং ২ ব্লকও জলমগ্ন হয়ে যায়। এলাকার সধারণ মানুষকে এই অপ্রীতিকর অবস্থা থেকে মুক্তি দিতেই মূলতঃ এই পরিকল্পনা তৈরী হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। পরিকল্পনা অনুয়ারী শীলাবতী নদীর উপর কমপক্ষে ছ’মিটার বাঁধ তৈরি করা হবে। যাতে ভরা বর্ষায় শীলাবতী নদী ছাপিয়ে জল ঘাটালকে না ভাসিয়ে দেয়। সেই সঙ্গে ঘাটাল এলাকার মধ্যে পাঁচ হাজার কিউসেক ক্ষমতাসম্পন্ন পাম্প বসানো হবে। সেই পাম্পের মাধ্যমে জমা জল পাম্প করে নদীতে ফেলা হবে। এছাড়াও ওল্ডকোশি, নিউকোশি, দুর্গাচটি প্রভৃতি মজে যাওয়া নদীর নাব্যতা বাড়ানোর জন্য পলি কাতা হবে। একই সাথে ঐ এলাকায় কয়েকটি খালের ও সংস্কার করা হবে। জানা যাচ্ছে গত সপ্তাহে দিল্লিতে এক বৈঠকে রাজ্যের সেচদপ্তরের কর্তাদের যা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় জলমন্ত্রকের প্রধান সচিব ইউ পি সিং। তাতে হতবাক রাজ্য সরকার। তাহলে কি পুরো টাকাই রাজ্য সরকারকে খরচ করতে হবে? চিন্তায় পড়েছেন নবান্নের কর্তাব্যক্তিরা। তবে আর্থিক সাহায্য চেয়ে জন্য কেন্দ্রীয় জলমন্ত্রকের কাছে চিঠি পাঠাবে সেচদপ্তর।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!