এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > এটাই কি গণতন্ত্র? ভোট দিতে না পেরে বিক্ষোভ দেখিয়ে মার্ খেতে হচ্ছে রাফের হাতে

এটাই কি গণতন্ত্র? ভোট দিতে না পেরে বিক্ষোভ দেখিয়ে মার্ খেতে হচ্ছে রাফের হাতে

চোপড়ায় সকাল থেকেই শুরু হয়েছে নানা অভিযোগ। সাধারণ গ্রামবাসীদের অভিযোগ যে তাঁরা ভোট দিয়তে গেলেই তাঁরা ভোট দিতে পারছেন না। কেননা তাদের অভিযোগ বুথে থাকা তৃণমূল কর্মীরা তাদেরকে বাধা দিচ্ছে। শুধু তাই নয় পাল্টা প্রশ্ন করলে তাদের বলা হচ্ছে যে, তাদের ভোট হয়ে গেছে।আর তা মেনে বুথ না ছাড়লে মারধর করা যাচ্ছে।

আর এই অভিযোগ করেই তাঁরা জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন। এদিকে কয়েকজন গ্রামবাসী বুথে থাকা তৃণমূল কর্মী যাঁর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছিল সেই কর্মী নেতাকে তারা করেন এবং মারধর করার চেষ্টা করতেই তাঁকে পুলিশ উদ্ধার করে নিয়ে যান।

আর এর পরেই গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ শুরু করেন তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। তাদের দাবি এরা গ্রামবাসী নয় এরা সব বিজেপি কর্মী। আর এর পরেই তাদের দিকে পাথর ছুড়তে শুরু করেন তাঁরা। যখন সংবাদ মধ্যে তাদের প্রশ্ন করেন তখন তাঁরা বলেন আমরা কিছু করি নি।

এদিকে পুলিশ প্রচুর ফোর্স নিয়ে এলাকায় আসেন তখনও একদিকে চলছে অবরোধ। অন্যদিকে ভয়ে অন্য গ্রামবাসীরা ঘরে ঢুকে গেছেন। এলাকা বন্ধের চেহারা নিয়েছে। পুলিশ এসে প্রথমে কোনো ব্যাবস্থা না নিলেও পরে বার বার সংবাদমাধ্যমের অনুরোধে বিক্ষোভকারীদের কাছে গিয়ে দায়সারাভাবে ভোট দেবার কথা বলেন। কিন্তু বিক্ষোভকারীরা কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া ভোট দেবেনা বলে জানিয়ে দে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এর পরেই পুলিশ বিক্ষোভকারীদের লাঠিচার্জ করে। কাঁদানে গ্যাস চোরা হয়। এইসময় পাল্টা বিক্ষোভকারীরা পুলিশের উপর আক্রমণ করে। কিন্তু অবাক করে দিয়ে এই সময় বোমা ফাটে চোপড়ায়। আর সেই নিয়েই প্রশ্ন যে বোমা এলো কোথা থেকে? পুলিশ কি করছিলো এতদিন? কে ফাটালো বোমা? সেই সব প্রশ্নের উত্তর না নিয়েই বিক্ষোভকারীদরে মারধর করতে শুরু করা হয় কেননা তারা নিজেদের ভোট নিজেরা দেবার দাবি জানিয়েছিল।

এদিকে বোমা নিয়ে তৃণমূলের দাবি এরা গ্রামবাসী নয়, তারা বিজেপি,তাই তাদের কাছে বোমা ছিল বোমা ফাটালো। অন্যদিকে বিরোধীদের দাবি যে যদি তাই হয় পুলিশ কেন এতদিন সেই বোমা বের করেনি। আর নিরীহ গ্রামবাসীদের বিজেপি প্রমান করতেই তৃণমূলের তরফ থেকে বোমা ফাটানিও হয়েছে।

কিন্তু প্রশ্ন থেকেই গেলো? আর তা হলো গণতন্ত্র মেনে নিজেদের ভোট না দিতে পেরে বিক্ষোভ দেখিয়ে মার্ খেতে হচ্ছে রাফের হাতে এটাই কি প্রকৃত গণতন্ত্র?

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!