এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অশালীন মন্তব্য, তাণ্ডব চালালো চেয়ারম্যানের অনুগামীরা

পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অশালীন মন্তব্য, তাণ্ডব চালালো চেয়ারম্যানের অনুগামীরা

সোস্যাল মিডিয়ায় এলাকার জনপ্রতিনিধির নামে কটুক্তির জেরে উত্তপ্ত হয়ে উঠলো দক্ষিণ ২৪ পরগনার বজবজ এলাকা। বজবজ পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ঐ পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত ডিএন ঘোষ রোডের বাসিন্দা সুরজিত্‍ পালোই’র অশালীন মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সুরজিত্‍ পালোই পেশায় একজন বেসরকারি সংস্থার চাকুরে। এদিন ফেসবুকে পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান গৌতম দাশগুপ্ত সম্পর্কে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে কুমন্তব্য করেন বলে জানা গিয়েছে। আর এই অভিযোগেই রবিবার রাতে অভিযুক্ত সুরজিত্‍ পালোই’র বাসভবনে ভাইস চেয়ারম্যানের অনুগামীরা চড়াও হলো বলে জানা গিয়েছে।

এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের বয়ান অনুসারে, এদিন রাতে হুড়মুড় এলাকায় ঢুকে পড়েন ভাইস চেয়ারম্যানের অনুগামীরা। তারপরে তারা সুরজিত্‍ পালোই’র বাড়িতে ঢূকে ভাঙচুড় শুরু করে। শুধু তাঁর বাড়ি নয় আশে পাশের দুটি বাড়িতেও তাণ্ডব চলে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে বজবজ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাঠিচার্জ করে। এবং অভিযুক্ত সুরজিত্‍ পালোইকে আটক করে নিয়ে যায়।

অবশ্য এই ঘটনায় তাঁর ভূমিকার কথা মানতে নারাজ বজবজ পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান গৌতম দাশগুপ্ত। তিনি বললেন, ” ফেসবুকে আমার সম্পর্কে অশালীন মন্তব্য সকলেরই চোখে পড়েছে। ঘটনাটি জানার পর বজবজ থানার খবর দিয়েছি।” একইসাথে তিনি দাবি করলেন , অভিযুক্ত সুরজিত্‍ পালোই বিজেপি সমর্থক। অন্যদিকে এলাকার উত্তেজিত জনতা নিজেদের মতামত প্রকাশ করে জানালেন, কেউ যদি ফেসবুকে কারও সম্পর্কে অশালীন মন্তব্য করে থাকেন, তাহলে তো থানায় অভিযোগ করা উচিত। আইনী সাহায্য নেওয়া উচিত। খামোকা এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করে তাণ্ডব করার অর্থ কী !

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!