এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > লোকসভার আগে শক্তিবৃদ্ধি – শাসকদলে যোগ দিলেন হেভিওয়েট প্রাক্তন বাম বিধায়ক

লোকসভার আগে শক্তিবৃদ্ধি – শাসকদলে যোগ দিলেন হেভিওয়েট প্রাক্তন বাম বিধায়ক

সমস্ত জল্পনা কল্পনার আবাসন ঘটিয়ে আজ হেভিওয়েট তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে শাসকদলে যোগ দিলেন মালদা জেলার মালতীপুর বিধানসভা কেন্দ্রের আরএসপি দলের প্রাক্তন বিধায়ক রহিম বক্সী। তাঁর শাসকদলে যোগদান নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই জল্পনা কল্পনা চলছিল, বিশেষ সূত্রের খবর অনুযায়ী তাঁর দলবদল একপ্রকার পাকাই হয়ে ছিল।

শুধু রহিম বক্সী নিজে চাইছিলেন ডিসেম্বর মাসটা কাটিয়ে তবে যোগদান করতে। রাজনৈতিক মহলের ধারণা বিগত বিধানসভা নির্বাচনে মালদা জেলা থেকে শূন্য হাতে ফিরতে হয় তৃণমূল কংগ্রেসকে। তারপরই এই জেলার দায়িত্ব দেওয়া হয় শুভেন্দু অধিকারীকে। শুভেন্দুবাবু গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাকি জেলাতে জোড়াফুল ফোটালেও বামনগোলা, হবিবপুর ব্লকে আশানুরূপ ফল করতে পারেনি তৃণমূল কংগ্রেস।

আমাদের খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে, নীচের যে কোন একটি করুন –

১. যোগ দিন আমাদের WhatsApp Group – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
২. যোগ দিন আমাদের Telegram Group – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৩. যোগ দিন আমাদের Facebook Group – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৪. যোগ দিন আমাদের Twitter Handle – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৫. যোগ দিন আমাদের Google+ Group – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৬. যোগ দিন আমাদের LinkedIn Group – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৭. যোগ দিন আমাদের Tumblr গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৮. বুকমার্ক করে রাখুন আমাদের Official Home Page – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
৯. যোগ দিন আমাদের YouTube Chanel – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে
১০. যোগ দিন আমাদের Facebook Page – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর তারপরেই রহিম বক্সীকে দলে নিতে তিনি উঠে পরে লেগেছিলেন। আর তারই ফলশ্রুতি এই দলবদল। এদিন পাকুয়াহাটে এক বিশাল জনসভায় এই দলবদল প্রসঙ্গে শুভেন্দুবাবু জানান, রহিম বক্সীর মত অনেক বাম নেতা তৃণমূলে এসেছেন। আরো অনেকে আসবেন। রহিম বক্সীর মতো নেতা দলে আসাতে মালদহ জেলার সংগঠন আরো চাঙ্গা হবে। এই জেলায় দুটি লোকসভা আসনে আমাদের জয়ী হতে হবে।

এর পাশাপাশি তিনি তীব্র কটাক্ষ করেন দক্ষিণ মালদার কংগ্রেস সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরীকে। তাঁকে এনআরআই সাংসদ বলে কটাক্ষ করে শুভেন্দুবাবু জানান, দক্ষিণ মালদহের একজন সাংসদ আছেন কুড়ি বছর ধরে। অথচ একটাও রাস্তার কাজ করতে পারেননি। আজকের জনসভায় শুভেন্দুবাবুর পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু চৌধুরি, সাবিত্রী মিত্র, তৃণমূলের জেলা সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।

Top
Close
error: Content is protected !!