এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > প্রয়াত হেভিওয়েট বিজেপি নেতা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী – শোকের ছায়া সর্বস্তরে

প্রয়াত হেভিওয়েট বিজেপি নেতা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী – শোকের ছায়া সর্বস্তরে

প্রয়াত হলেন প্রখ্যাত বিজেপি নেতা ও অটলবিহারী বাজপেয়ী মন্ত্রিসভার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য রাম জেঠমালানি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর, আজ দিল্লিতে নিজের বাসভবনেই মৃত্যু হয় তাঁর। দেশের প্রাক্তন আইনমন্ত্রীর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে রাজনৈতিক মহলে।

তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি ছাড়াও নিজেদের ট্যুইট বার্তায় শোকপ্রকাশ করেন আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এদিন তাঁর মৃত্যুর খবর পেয়েই তাঁর বাসভবনে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

রাজনীতির পাশাপাশি তিনি প্রখ্যাত আইনজ্ঞ হিসাবেও পরিচিত ছিলেন। দেহভাগের আগে করাচিতে তিনি আইনজীবী হিসাবে কাজ করতেন। দেশভাগের পর তিনি মুম্বইয়ে চলে আসেন ও সেখান থেকেই আইন-চর্চা করতে থাকেন। একাধিক হাই-প্রোফাইল মামলা তিনি তাঁর সুদীর্ঘ কেরিয়ারে সামলেছেন।

আরজেডির রাজ্যসভার সাংসদ হিসাবে তাঁর জাতীয় রাজনীতিতে হাতেখড়ি হয়। পরে তিনি বিজেপিতে যোগদান করেন ও মুম্বই থেকে দু-দুবার লোসাভার সাংসদ হিসাবে নির্বাচিত হন। অটলবিহারী বাজপেয়ী মন্ত্রীসভায় তিনি গুরুত্বপূর্ণ আইনমন্ত্রকের দায়িত্ব সামলান। পরে অবশ্য তিনি বাজপেয়ী মন্ত্রীসভা থেকে বেরিয়ে আসেন। পরে, ২০১০ সালে সুপ্রিম কোর্টের বার অ্যাসোশিয়েশনের সভাপতি মনোনিত হন তিনি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!