এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ইভিএম না ব্যালট কিসে হবে পৌরসভা নির্বাচন! জেনে নিন

ইভিএম না ব্যালট কিসে হবে পৌরসভা নির্বাচন! জেনে নিন

লোকসভা নির্বাচনে ইভিএমে সারাদেশে ভোটগ্রহণ পর্ব সম্পন্ন হয়েছিল। তবে সেই সময় থেকেই ইভিএম নয়, ব্যালট চাই স্লোগান দিতে দেখা দিয়েছিল তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। এমনকি প্রতিটা নির্বাচনেই যাতে ইভিএমের বদলে ব্যালটে নির্বাচন করানো হয়, তার জন্য দাবি তুলেছিল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

তবে ব্যালটে নির্বাচন হলে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস বেশি কারচুপি পড়বে বলে পাল্টা অভিযোগ করেছিল বিজেপি। আর এমত পরিস্থিতিতে লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন হওয়ার পর, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচন ইভিএম নাকি ব্যালটে হবে! তা নিয়ে নানা মহলে নানা জল্পনা চলছিল। অবশেষে সেই জল্পনার অবসান হল।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, আগামী পৌরসভা নির্বাচন ব্যালটেই অনুষ্ঠিত হবে। বস্তুত, ইতিমধ্যেই পৌরসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি হিসেবে আসন সংরক্ষণের খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। জানা গেছে, আগামী 10 ফেব্রুয়ারি রাজ্য নির্বাচন কমিশন পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে তাদের দিনক্ষণ ঘোষণা করতে পারে। তবে নির্বাচনের সমস্ত প্রস্তুতি ধীরে ধীরে এগোতে শুরু করলেও, রাজনৈতিক মহলের নজর ছিল, বাংলায় পৌরসভা নির্বাচন কিসের মাধ্যমে হবে তার দিকে।

অবশেষে রাজ্য সরকারের ইচ্ছাই পূর্ণ হল। জানা গেছে, ব্যালটের মাধ্যমেই পৌরসভা নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। বিশ্লেষকদের একাংশ বলছেন, অতীতে 2018 সালের পঞ্চায়েত নির্বাচন ব্যালট পেপারে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তাই সেদিক থেকে এই নির্বাচন করাতে কোনো অসুবিধা থাকার কথা নয়। কিন্তু বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো এখন এই ব্যাপারে আপত্তি জানাতে পারে বলে মনে করছে একাংশ। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোন দিকে মোড় নেয়! সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
Top