এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > এবার নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে বড়োসড়ো তোপ দাগলো বিজেপি, জেনে নিন বিস্তারিত

এবার নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে বড়োসড়ো তোপ দাগলো বিজেপি, জেনে নিন বিস্তারিত

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করতে প্রথম থেকেই নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিল রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। কিন্তু এবার নির্বাচনের দামামা বাজার পর রাজ্য রাজনীতিতে যখন শাসক বনাম বিরোধীর তরজা তুঙ্গে উঠতে শুরু করেছে, ঠিক তখনই সেই রাজ্য নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলতে দেখা গেল সেই গেরুয়া শিবিরকে।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার একটি সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্যে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন প্রসঙ্গে কিছুটা হলেও নির্বাচন কমিশনের মনোভাব নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করতে দেখা যায় বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদারকে। তিনি বলেন, “রাজ্যে স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য যে ধরনের মনোভাব দেখানো উচিত নির্বাচন কমিশন তা দেখাচ্ছে না। এনিয়ে আমরা কমিশনে অভিযোগ করেছি।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিকে সম্প্রতি বসিরহাটের বিজেপি প্রার্থী সায়ন্তন বসুর বিতর্কিত মন্তব্যে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গেলে এবং সায়ন্তনবাবুর বিরুদ্ধে কমিশনের পক্ষ থেকে শোকজ করা হলে এদিন সেই ব্যাপারেও মুখ খুলতে দেখা যায় জয়প্রকাশ মজুমদারকে। তিনি বলেন, “দলের নেতারা মার খাচ্ছে পুলিশ কোনো অভিযোগ নিচ্ছে না। যারা হামলাকারীদের হাতে অস্ত্র দিচ্ছে তারাই আজ থানায় বসে আছে। বসিরহাটে বহু অস্ত্র রয়েছে। সেই সমস্ত অস্ত্র আগে জমা করা হোক। দলীয় কর্মীরা দেওয়াল রং করতে গেলে, পতাকা নিয়ে বের হলে মারধর করা হচ্ছে। আর কোথাও কোনো নেতার মুখের ভিত্তিতে শোকজ করা হচ্ছে। তাহলে যারা মারধর করছে তাদের কি হবে?”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষন করতেই এদিন রাজ্যের গণতন্ত্র প্রহসনে পরিণত করতে চাইছে শাসক দল ও সেই শাসকদলের ঘনিষ্ঠ পুলিশ প্রশাসন বলে মন্তব্য করে সকলের জন্য আইন সমান এবং তাই দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানালেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!