এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখেই বাংলার প্রতি বিশেষ নজর কেন্দ্রের, জেনে নিন বিস্তারিত

বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখেই বাংলার প্রতি বিশেষ নজর কেন্দ্রের, জেনে নিন বিস্তারিত

রাজ্যের তৃণমূল সরকারের সঙ্গে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বরাবরই আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্ক। একে অপরকে খোঁচা দিতে ছাড়ে না কোনো পক্ষই। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল 22 এবং বিজেপি 18 টি আসন পাওয়ার পর দু’পক্ষের তরজা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।কিন্তু এবার বাংলায় তৃনমূলের আমলে পশ্চিমবঙ্গে ঠিক কি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে, তার পুঙ্খানুপুঙ্খ বিবরণ শুনবেন বিজেপির সাংসদরা।

সূত্রের খবর, বিজেপি কেন্দ্রীয় পার্টির তরফ থেকে সংসদের অধিবেশন চলাকালীন বাংলার পরিস্থিতি নিয়ে একটি বিশেষ আলোচনা সভা আয়োজন করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ বলছেন, এটা সত্যিই একটি নজিরবিহীন ঘটনা।

কেননা শুধুমাত্র একটি রাজ্যকে নিয়ে সারা দেশের এমপিদের এরকম আলোচনা করা বাংলাকে যে সত্যিই বাড়তি নজর দিচ্ছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত প্রায় সকলেই। অনেকে বলছেন, আর বছর দুই পরেই বাংলার বিধানসভা নির্বাচন। তাই তার আগে সেখানে ভালো ফল করতে এখন থেকেই নিজেদের ঘুটি সাজিয়ে নিতে চায় গেরুয়া শিবির। আর তাই তার আগে তৃণমূলকে চাপে রাখতে সারাদেশের বিজেপি সাংসদরা বাংলার পরিস্থিতি নিয়ে তাদের বক্তব্য শুনতে চায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

জানা গেছে, মূলত বাংলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, শিক্ষা ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য পরিসেবা এবং সামগ্রিক হাল-হকিকত নিয়ে চারটি ভাগে ভাগ করে আলোচনা হতে পারে। যেখানে এই সভাতে মূল বক্তা হিসেবে থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের 4 বিজেপি সাংসদ। কিন্তু সেই চার সাংসদ কারা, তা এখনও পর্যন্ত জানানো হয়নি।

এদিন এই প্রসঙ্গে বাংলার এক বিজেপি সাংসদ বলেন, “এই বিশেষ আলোচনা সভা কোথায় হবে এবং কবে হবে তা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আগামী কয়েক দিনের মধ্যে নেওয়া হবে। বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় থেকে এখনও পর্যন্ত যেভাবে তৃণমূলের হাতে বিজেপি নেতা কর্মীরা খুন হয়েছে, তার সবিস্তার বিবরণ আমরা সকলের সামনে তুলে ধরব।

শুধু তাই নয়, রাজ্যের অসহযোগিতার কারণে যেভাবে কেন্দ্রীয় প্রকল্প থেকে বাংলার মানুষ বঞ্চিত হচ্ছে, তাও আমরা তুলে ধরার চেষ্টা করব।” এদিকে ইতিমধ্যেই চলতি সপ্তাহেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বাংলার তিন বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু, সুভাষ সরকার এবং অর্জুন সিংহ দেখা করতে পারেন বলে জানা গেছে। আর এই সাক্ষাৎ রাজনৈতিকভাবে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

কেননা বাংলা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার আগে বঙ্গের বিজেপি সাংসদদের সাথে আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী সমস্ত বিষয় জেনে নিতে পারেন। ফলে এবার বাংলার সমস্ত পরিস্থিতি নিয়ে বিজেপি সাংসদরা আলোচনা সভা করায় রাজ্যের শাসকদল ঠিক কতটা বিপাকে পড়ে, সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

Top
error: Content is protected !!