এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নির্বাচনের আগেই বড় সাফল্য – রাজ্যের জালনোট কারবারীদের দুই প্রধান মাথা পুলিশের হেফাজতে

নির্বাচনের আগেই বড় সাফল্য – রাজ্যের জালনোট কারবারীদের দুই প্রধান মাথা পুলিশের হেফাজতে


আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে গোটা রাজ্য জুড়ে জাল নোট ছড়িয়ে পড়ার কারবারে বাড়বাড়ন্তে রীতিমতো চিন্তার ভাঁজ পড়েছিল নির্বাচন কমিশনের কপালে। তবে এবার সেই জালনোট কারবারীদের মূল মাথা রফিকুল সেখ এবং তার এক সহযোগীকে নিজেদের হেফাজতে নিল কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স।

সূত্রের খবর, কিছুদিন আগেই গোয়েন্দাদের কাছে খবর আসে যে এই জাল নোটের কারবারের সাথে যুক্ত মাথারা নিজেদের গ্রেফতারি এড়াতে বেশি সংখ্যায় এজেন্ট নিয়োগ করে কাজ করতে শুরু করেছেন। আর এরপরই এই কারবারের সঙ্গে যুক্ত বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর তখনই এই ঘটনায় ধরা পড়েনি সেই রফিকুল শেখ এবং তার এক সহযোগী। আর তাদের কাছ থেকে বিপুল অংকের জাল নোট উদ্ধার হয়। কিন্তু এই দুইজনই যে জাল নোট কারবারির মূল মাথা কে তা প্রথমে সেই ভাবে আন্দাজ করতে না পারলেও পরবর্তীতে রেজ্জাক শেখ এবং বিকাশকুমার গৌতম নামে দুই ব্যক্তি এই কারবারে ধরা পড়ায় এই ঘটনায় মূল পান্ডা কে তা জানবার জন্য তাদের জেরা করলে সেখানেই সেই রফিকুল সেখ এবং তার সহযোগীর নাম উঠে আসে।

জানা গেছে, মালদহ থেকেই এই নকল নোট নিয়ে এসে তারা বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে দেয়। আর ধৃতদের কাছ থেকে সেই রফিকুল সেখ এবং তার সহযোগী জালনোট কারবারীর মূল পান্ডা হিসেবে উঠে আসায় এই জাল নোটের মামলায় জেলবন্দি রফিকুল ও তার সহযোগীকে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে এদিন আদালতে আবেদন করে পুলিশ।

আর পুলিশের সেই আবেদনের ভিত্তিতেই তা মঞ্জুর করেন বিচারক। সব মিলিয়ে এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে জালনোট কারবারীদের বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে প্রধান দুই মাথাকে নিজেদের হেফাজতে নিল পুলিশ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!