এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > সামনের উপনির্বাচন থেকেই কি বাংলায় জোট করে লড়তে শুরু করলো বাম-কংগ্রেস? বামেদের সিদ্ধান্তে জল্পনা

সামনের উপনির্বাচন থেকেই কি বাংলায় জোট করে লড়তে শুরু করলো বাম-কংগ্রেস? বামেদের সিদ্ধান্তে জল্পনা

 

সামনেই রাজ্যে তিনটি উপনির্বাচন হতে চলেছে। আর সেই নিয়েই বামেদের সিদ্ধান্ত ঘিরে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে আগামী বিধানসভা ভোটে কংগ্রেসের সাথে জোট বেঁধে লড়া নিয়ে।তৃণমূলকে হটাতে ২০১৬ বিধানসভা ভোটে জোট বেঁধে লড়াই করেছিল এককালের দুই প্রতিপক্ষ দল কংগ্রেস-সিপিআইএম। যদিও শেষ রক্ষা হয়নি। ফের ক্ষমতায় এসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কিন্তু লোকসভা ভোটের আগে থেকে তৃণমূলের তরফ থেকে কেন্দ্র থেকে বিজেপিকে হটাতে বৃহত্তর জোটের ডাক দেওয়া হয়েছিল। তাতে সিপিআইএমকেও জোটে সামিল হওয়ার আহ্বান করা হয়েছিল। তবে শুধু কেদ্র নয়। রাজ্যেও বিজেপির বারবারান্তর আভাস পেয়ে লোকসভা ভোটের আগেও একত্রে কংগ্রেস, সিপিআইএম,এর সাথে জোট বেঁধে লড়াই করার ডাক দিয়েছিলো তৃণমূল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তবে সত্যি বিজেপির বাড়বাড়ন্ত লক্ষ্য হয়েছে সদ্য শেষ হওয়া লোকসভা ভোটে। রাজ্যের ৪২ টি আসনের মধ্যে মাত্র ২২ টি আসনেই থামতে হয়েছে তৃণমূলকে। এদিকে ১৮ টি আসন ছিনিয়ে নিয়েছে বিজেপি। আর এরপরে আরো প্রবলভাবে তৃণমূলের তরফ থেকে বিজেপিকে রুখতে সিপিআইএম,কংগ্রেসকে একত্রে লড়াই করার ডাক দিয়েছে তৃণমূল।

কিন্তু সিপিআইএম এর তরফ থেকে বার বার দাবি করা হয়েছে তৃণমূলের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতেই তারা মাঠে নেমেছে তাই তৃণমূলের হাত ধরা সম্ভব নয়। এদিকে লোকসভা ভোট ভাবা হয়েছিল কংগ্রেস ও সিপিআইএম জোট বেঁধে লড়বে কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর তা সম্ভব হয়নি। তাই এই নিয়ে বার বার প্রশ্ন উঠেছে বিজেপি তৃণমূলকে আটকাতে কি ২০২১ সে বিধানসভা ভোটে ফের জোট বাঁধবে কংগ্রেস-সিপিআইএম।

আর এদিন সেই জল্পনাকে ফের উস্কে দিল সিপিআইএম। সিপিএমের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, খড়্গপুর উপনির্বাচনে কংগ্রেসের যিনি প্রার্থী হবেন, তাকেই তারা সমর্থন করবেন। আর তাই জল্পনা শুরু যে এই উপনির্বাচন দিয়েই কি শুরু হলো বাং-কংগ্রেস জোটের। এখন কি হবে ভবিষ্যৎ বলবে আর সেদিকে অবশ্যই লক্ষ্য থাকবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!