এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এক গ্রেপ্তারির ঘটনায় মিলে গেল তিন বিরোধী পক্ষ

এক গ্রেপ্তারির ঘটনায় মিলে গেল তিন বিরোধী পক্ষ

সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে অনেকেই তাঁদের বক্তব্য পেশ করেন। কিন্তু তার ফলে গ্রেপ্তারের ঘটনা সচরাচর দেখা যায় না। কিন্তু এবার সেরকমই এক ঘটনার সাক্ষী রইল রাজ্যবাসী। সোশ্যাল মিডিয়া সংক্রান্ত ঘটনায় সম্প্রতি গ্রেপ্তার হয়েছেন কংগ্রেস নেতা ও প্রাক্তন সাংবাদিক সন্ময় বন্দোপাধ্যায়। সাইবার ক্রাইমের অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই গ্রেফতারের প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছে বাম ও কংগ্রেস নেতৃত্ব। এই গ্রেপ্তারির ঘটনায় ইতিমধ্যে রাজ্য রাজনীতি উত্তাল। কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ, রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে চাঁচাছোলা ভাষায় সমালোচনা করাতেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে সাইবার ক্রাইমের আওতায়।

কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে ইতিমধ্যেই বাম ও কংগ্রেস দল দাঁড়িয়েছে। এবার সন্ময় বন্দোপাধ্যায়ের পাশে এসে দাঁড়ালো বিজেপি। শনিবার বিজেপির জয়প্রকাশ মজুমদার এবং অগ্নিমিত্রা পাল পানিহাটিতে তাঁর বাড়ি পৌছান। যদিও এই নিয়ে তৃণমূল পাল্টা বলেছে, সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় যে বিজেপির লোক সেটা প্রমাণ হয়ে গেল।

সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় ইউটিউব, ফেসবুকের মতন বিভিন্ন সোশ্যাল মাধ্যমে সব সময় সক্রিয় ছিলেন। সমস্ত জায়গাতেই তৃণমূলের কড়া সমালোচনা করতেন তিনি। আর তারপরেই সাইবারক্রাইমের অপরাধে সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করা হয়। এদিন পানিহাটির বাড়িতে গিয়ে সম্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারের সাথে কথা বলেন বিজেপির জয়প্রকাশ মজুমদার ও অগ্নিমিত্রা পাল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর,ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সন্ময় মুখোপাধ্যায়ে পরিবার যথেষ্ট খুশি হয়েছে বিজেপি নেতাদের এই সৌজন্যবোধে। যদিও সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে বিজেপি প্রতিনিধিদের যাওয়া নিয়ে পাল্টা আক্রমণ করেছে তৃণমূল। পানিহাটি তৃণমূল বিধায়ক নির্মল ঘোষ বলেছেন, সন্ময় বন্দোপাধ্যায় যে বিজেপির লোক, তা প্রমাণ হয়ে গেল। অন্যদিকে, সন্ময় বন্দোপাধ্যায়ের পরিবারের লোক এই অভিযোগ সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁদের পাল্টা দাবি, সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে কিছুতেই করায়ত্ত না করতে পেরে উল্টোপাল্টা কথা বলছে তৃণমূল।

সন্ময় ব্যানার্জীর গ্রেপ্তারের ঘটনায় ইতিমধ্যে সোচ্চার হয়েছে বাম ও কংগ্রেস দল। শুক্রবার একযোগে তাঁরা খড়দা থানা ঘেরাও করে এবং বিক্ষোভ দেখায়। শনিবার এই নিয়ে প্রদেশ কংগ্রেসের অফিস থেকে মৌলালি পর্যন্ত একটি মিছিল বার করে কংগ্রেস। শুধু বাম ও কংগ্রেস নয়, এই ঘটনার প্রতিবাদে একই সারিতে এসে প্রতিবাদ জানালো বিজেপিও।

সূত্রের খবর, সোশ্যাল মিডিয়ায় যথেষ্ট পরিচিত মুখ সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর একটি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল আছে। নানান সাম্প্রতিক বিষয় নিয়ে সেখানে নিয়মিত পোস্ট করতেন সন্ময় বন্দোপাধ্যায়। প্রাক্তন কংগ্রেস কাউন্সিলরকে পুরুলিয়া থানার পুলিশ এসে রাতারাতি তুলে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে এবার বাম ও কংগ্রেসের সাথে একই সুরে সুর মেলালো বিজেপি। সমগ্র ঘটনা পর্যবেক্ষণ করে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, সোশ্যাল মিডিয়ায় উস্কানিমূলক মন্তব্য না করলে কখনোই কারোর বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইমের অভিযোগ আনা ঠিক নয়। আপাতত এই ঘটনার ওপর পূর্ণ দৃষ্টি রেখেছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!