এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > এবার তৃণমূল সাংসদের বেফাঁস উস্কানিমূলক মন্তব্য! সমালোচনায় মুখর রাজনৈতিক মহল

এবার তৃণমূল সাংসদের বেফাঁস উস্কানিমূলক মন্তব্য! সমালোচনায় মুখর রাজনৈতিক মহল

লোকসভা নির্বাচনের প্রাক পর্ব থেকেই পশ্চিমবঙ্গে দুই যুযুধান রাজনৈতিক শিবির তৃণমূল বনাম বিজেপির মহাযুদ্ধ দেখে চলেছে রাজনৈতিক মহল। আর এই মহা যুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য একটা বিশেষ স্থান নিয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। এবার বেফাঁস মন্তব্য করে উত্তেজনা ছড়ালেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। মারের বদলা মার এর কথা বললেন তিনি। এতদিন বিজেপি নেতৃত্বের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল যে বিভিন্ন সময়ে কুরুচিকর মন্তব্য করেন তিনি। এদিন সেই একই পথে হেঁটে বিজেপি সম্বন্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী নীতির প্রতিবাদে জাঙ্গিপাড়া বিধানসভায় রাজবল্লভ হাটে জনসভার আয়োজন করা হয়। এদিন প্রকাশ্য জনসভায় কড়া ভাষায় বিজেপিকে আক্রমণ করেন শ্রীরামপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ভিড়ে ঠাসা জনসভায় দলীয় কর্মীদের উজ্জীবিত করতে বিজেপিকে মারের বদলে পাল্টা মারের কথা বললেন তিনি।

এদিন কল্যাণবাবু জনসভা থেকেই দলত্যাগীদের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দিয়ে বললেন, ‘যাঁরা দল ছেড়ে চলে গিয়েছেন, মনে করবেন বদ রক্ত চলে গিয়েছে। আর যাঁরা দলে থেকে লড়াই করছেন তাঁরাই সম্পদ। আগামী দিনে তাঁদের নিয়েই দল লড়বে।’ এর পরেই তিনি দলীয় কর্মীদের উজ্জীবিত করতে বেফাঁস মন্তব্য করে ফেলেন। তিনি বলেন, ‘বিজেপি যদি আপনার হাত পা ভাঙে তবে আপনারাও বিজেপির হাত-পা ভাঙ্গুন। আর যাঁরা ভয় পাবেন তাঁরা পদ ছেড়ে দিয়ে বাড়িতে গিয়ে বসে থাকুন। ভয় পেলে জলে ডুবে মরুন।’আগামী দিনের রাজনৈতিক লড়াইয়ের জন্য এভাবেই প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিলেন তিনি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এই জনসভায় কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন হুগলি জেলা তৃণমূল সভাপতি দিলীপ যাদব, জাঙ্গীপাড়ার বিধায়ক স্নেহাশিস চক্রবর্তী, জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ সুবীর মুখোপাধ্যায় প্রমুখ।অন্যদিকে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ তীব্র কটাক্ষ সহকারে বলেন, ‘কয়েকদিন আগেই আমি জাঙ্গিপাড়া সভা করেছি। তাই আজ পাল্টা সভা করতে হলো তৃণমূলকে। এসব করে লাভ নেই। মানুষই ওদের সঙ্গে নেই।’

কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। তৃণমূল নেতাদের সক্রিয় মনোভাব বোঝাতে গিয়ে সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে বেফাঁস মন্তব্য করলেন তা যথেষ্ট নিন্দনীয় বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। বিরোধী শিবিরের দাবি, এ ধরনের কথা বলে তৃণমূল সাংসদ রাজনৈতিক হিংসাকে উস্কে দিতে চাইছেন। তবে তৃণমূল সাংসদের এই বক্তব্যকে পাথেয় করে যদি তৃণমূল চলে, তাহলে রাজনৈতিক হানাহানি যে মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে যাবে সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞগণ। আপাতত পরিস্থিতির ওপর নজর থাকবে সবার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!