এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > এবার রাজ্যে আলুর দাম বাড়বাড়ন্ত, এবার দিলীপের তোপে মুখ্যমন্ত্রী

এবার রাজ্যে আলুর দাম বাড়বাড়ন্ত, এবার দিলীপের তোপে মুখ্যমন্ত্রী


বিভিন্ন ইস্যুর পাশাপাশি এবার আলুর দাম বৃদ্ধি নিয়ে রাজ্য বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করল। কিছুদিন আগেই পিঁয়াজের বাজার ছিল অগ্নিমূল্য। যা এখনো সঠিক জায়গায় এসে পৌঁছায়নি। উপরন্তু এর ওপর দেখা যাচ্ছে আলুর দাম চূড়ান্তভাবে বেড়ে চলেছে। এই ঘটনার ফলে মধ্যবিত্তরা স্বাভাবিকভাবেই অত্যন্ত বেকায়দায় পড়েছে বলে জানা যাচ্ছে। দিনযাপনের প্রতিটি জিনিসের দাম যেভাবে অগ্নিমূল্য হচ্ছে, তাতে মধ্যবিত্তের মাথায় হাত। আলুর দাম বেড়ে ওঠার পেছনে অবশ্য রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকেই দায়ী করছেন।

এদিন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দোষারোপ করে বললেন, মুখ্যমন্ত্রী আন্দোলন করে এ রাজ্য থেকে ফসল নিয়ে বাইরে গাড়ি যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন, যে কারণে আলু রপ্তানি না হতে পেরে পচে যাচ্ছে। আর আলু বেচতে না পারায় চাষিরা অন্য চাষের দিকে ঝুঁকছেন। সেই কারণেই আলুর দাম বেড়ে উঠছে। দিলীপ ঘোষ আরো বড় অভিযোগ করেন রাজ্য তৃণমূলের প্রতি। তিনি জানান, কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যকে ধানের জন্য কুইন্টাল পিছু 17 টাকা করে দেয়। কিন্তু রাজ্য সরকার কৃষকদের ঠকিয়ে হাজার টাকা করে দেয়। বাকি 700 টাকার কোন খোঁজ পাওয়া যায় না।



WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।




আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, রাজ্যে একটা সময় প্রায় 5 লক্ষ টন আলু সারপ্লাস হতো। যদিও তা বাইরের রাজ্যে কোনদিনই বেচতে পারেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার বলে খবর। ফলে চাষীরা ক্রমশ আলু চাষ ছেড়ে দেয় এবং অন্য চাষের দিকে ঝোঁকেন। অন্যদিকে, বাংলা থেকে আলুর রপ্তানি না হওয়ায় বাইরের রাজ্যগুলি নিজেরাই আলুর বীজ এনে চাষ শুরু করেন। এদিন দিলীপ ঘোষ রাজ্য সরকারের দিকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, এ রাজ্যে কেন আলুর ক্রাইসিস হচ্ছে, তার জবাব দিতেই হবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আলুর দাম কেন বেড়ে উঠছে, এ নিয়ে ইতিমধ্যে শোরগোল উঠেছে রাজনৈতিক মহলে। অন্যদিকে, সাধারণ মধ্যবিত্তরাও বিপাকে পড়েছেন নিত্যদিনের জিনিসের দাম প্রতিনিয়ত বাড়ার ফলে। তবে নবান্নে টাস্কফোর্সের বৈঠক নিয়ম করে হওয়া সত্বেও খোলা বাজারে আলুর দাম বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। অন্য একটি সূত্রের খবর, চোরাপথে অন্য রাজ্যে আলু যাচ্ছে আর তাই দিনের পর দিন এ রাজ্যে আলুর দাম বেড়ে উঠছে। আপাতত কৃষি বিপনন দপ্তরের নজরে পুরো বিষয়টি এসেছে এবং এ ব্যাপারে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!