এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > এবার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে নিগ্রহের অভিযোগ তুলে পুলিশে অভিযোগ মহুয়া মিত্রের

এবার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে নিগ্রহের অভিযোগ তুলে পুলিশে অভিযোগ মহুয়া মিত্রের

এবার বিজেপির অন্দরেই বিজেপির বিরুদ্ধে উঠল অভিযোগ। অভিযোগও ছোটখাটো নয়, রীতিমতো শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ উঠেছে এক বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে। এতদিন বিভিন্ন অভিযোগের ফলায় বিদ্ধ হতে হয়েছে তৃণমূল সহ অন‍্যান‍্য দলকে। কিন্তু বর্তমানে দেখা যাচ্ছে, বিরোধী দল বিজেপির বিরুদ্ধেও অভিযোগের খামতি পড়ছে না। এদিন আবারও একটি ঘটনায় তা প্রমাণ হল। জলপাইগুড়ি জেলার মাল বাজারে এরকমই একটি ঘটনা ঘটেছে সম্প্রতি। দুই প্রতিবেশীর মধ্যে দ্বন্দ্ব রূপ নিয়েছে শারীরিক নিগ্রহের।

অভিযোগের তীর উঠেছে জলপাইগুড়ি জেলার মালবাজার পৌরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলর মানিক বৈদ্যের বিরুদ্ধে। অভিযোগকারিণী হলেন বিজেপি মহিলা মোর্চার নেত্রী মহুয়া মিত্র। তিনি অভিযোগ করেন, মানিক বৈদ্য তাঁকে শারীরিক নিগ্রহ করেছেন। এ নিয়ে তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ অনুসারে পুলিশ যদি কোনরকম ব্যবস্থা না নেয় তাহলে তিনি ধর্নায় বসার হুমকিও দিয়েছেন।

মহুয়া দেবী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, মানিক বৈদ্য তার প্রতিবেশী। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ঘটনায় মানিক বৈদ্য তাঁকে হেনস্থা করার চেষ্টা করেন। বৃহস্পতিবার রাতে মানিক বৈদ্য ও তাঁর ভাই মহুয়া দেবীর বাড়িতে এসে তাকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং একই সাথে চলে শারীরিক নিগ্রহ। মহুয়া দেবীকে হাত ধরে টানাটানি করা হয় এবং ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয় বলে দাবি করেছেন তিনি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে মানিক বৈদ্য সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জানিয়েছেন, মহুয়া দেবী তাঁকে অপমান করেছেন। অনেক সময় মহুয়া দেবীর বাড়ির নোংরা জল মানিক বৈদ্যের বাড়িতে ঢুকে পড়ে। এ নিয়ে কিছু বলতে গেলে শুনতে হয় চরম অপমানজনক কথা। তিনি দাবি করেন, তাঁর প্রতিবেশীরাও এই ঘটনার সাক্ষী। বৃহস্পতিবারও মহুয়া দেবীর বাড়ি থেকে নোংরা জল মানিক বৈদ্যের বাড়িতে ফেলা হয়। এ নিয়ে বলতে যাওয়ার পর মানিকবাবুকে চরম অপমানের সম্মুখীন হতে হয়। নিগ্রহের অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা। এবং গোষ্ঠী কোন্দলও কিছু হয়নি বলে জানান মাল পুরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলর মানিক বৈদ্য।

ঘটনার ভিত্তিতে মাল বিধানসভার সংযোজক মঙ্গল ওঁরাও জানিয়েছেন, এই ঘটনায় দলের কোনো দায়িত্ব নেই। এটা দলগত বিষয়ই নয়। পাড়া-প্রতিবেশীদের ঝামেলা। তবে তিনি বিস্তারিতভাবে খোঁজ নিয়ে সবিস্তারে সমস্ত ঘটনা জানাবেন বলে জানান।পুলিশের তরফ থেকে বলা হয়েছে, অভিযোগ জমা পড়েছে। এবং সেই অনুসারে সমস্ত অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমাণ হলে, সেইমতো ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

ঘটনায় বিরোধীদলের দাবি, রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের ভিড়ে এরকম অশালীন ঘটনা শুধুমাত্র বিজেপিতেই চলে। অন্য কোন দলে এ ধরনের ঘটনা নেই। তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, ঘটনার সত্যতা এখনো জানা যায়নি। তাই এ নিয়ে মন্তব্য অমূলক। বিজেপির এই ঘটনা নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি এখনো পর্যন্ত। অভিযোগের ভিত্তিতে এখন পুলিশ কি পদক্ষেপ গ্রহণ করে, সে দিকেই নজর থাকবে সবার‌।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!