এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > বিজেপি প্রার্থীই নাকি অশান্তির কারণ হতে পারেন! দুধকুমারকে আটকাতে পুলিশের রিপোর্ট, এডিওর শোকজ!

বিজেপি প্রার্থীই নাকি অশান্তির কারণ হতে পারেন! দুধকুমারকে আটকাতে পুলিশের রিপোর্ট, এডিওর শোকজ!


আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের মরসুমে এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করার অভিযোগে রাজনগর থানার রিপোর্টের ভিত্তিতে অবশেষে সোমবার সিউড়ি আদালতে হাজিরা দিলেন বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দুধকুমার মন্ডল। আর সেই আদালতে হাজিরা দিতে এসে এই গোটা বিষয়টিকে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের চক্রান্ত বলে অভিহিত করেন বিজেপি প্রার্থী।

কিন্তু ঠিক কী কারণে আদালতে হাজিরা দিতে হলো দুধকুমার মন্ডলকে? জানা গেছে, ভোটের সময় এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করতে পারে এমন মানুষজনের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই এসডিওর কাছে রিপোর্ট দেওয়া শুরু করেছে পুলিশ। আর সেই রকমই রাজনগর থানার পুলিশের তরফে বীরভূমের বিজেপি প্রার্থী দুধকুমার মন্ডলের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ করা হয়।

আর এনিয়েই প্রশাসনের তরফে সেই দুধকুমার মন্ডলকে নোটিশ পাঠানো হলে এদিন তার পরিপ্রেক্ষিতেই এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আশীষ কুমার বিশ্বাসের এজলাসে হাজির হন তিনি। জানা গেছে, এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে আগামী 10 এপ্রিল।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি এদিন আদালত চত্বরে এসে কিছুটা প্রচার করতেও দেখা যায় বীরভূমের বিজেপি প্রার্থীকে। অত্যন্ত সুকৌশলে এদিন কোর্ট চত্বরে এসে বিচারপ্রার্থীদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নিজের অনুগামীদের পিঠ চাপড়ে জনসংযোগ করে দুধ কুমার মন্ডল। আর তারপর জনবহুল মসজিদ মোড়ে এক আত্মীয়ের সঙ্গে দেখা করে সেখানে একটা ছোট্ট চায়ের দোকানে বসে বহু মানুষের সঙ্গে আলাপচারিতা সারেন তিনি। এরপর সবজি ও মাছের বাজারে গিয়ে পরে জুতো কিনতে হাজির হন দুধকুমার বাবু।

সেখানেই তৃণমূল পন্থী চিকিৎসক রতন দত্তের বাড়িতেও যেতে দেখা যায় তাঁকে। এদিকে বিরোধীদের তরফে দুধকুমার মন্ডলের এই প্রচার প্রক্রিয়া নিয়ে ইতিমধ্যেই অভিযোগের সুর তীব্র হয়েছে। তবে এইভাবে সাধারণ মানুষের সাথে আলাপচারিতাকে প্রচার হিসেবে মানতে নারাজ বীরভূমে বিজেপি প্রার্থী।

এদিন তিনি বলেন, “ওনারা আমার আত্মীয়। তাই দেখা করে গেলাম। যারা পরিচিত, তারা যদি হাত বাড়ায় তাহলে কি কথা বলব না!” সব মিলিয়ে এবার এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করার অভিযোগের ভিত্তিতে আদালতে হাজিরা দিয়ে অত্যন্ত সুকৌশলে প্রচার সারলেন বীরভূমের বিজেপি প্রার্থী দুধকুমার মন্ডল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!