এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > ডোমকলে ভয়াবহ নৌকাডুবি, নিখোঁজ 3- খোঁজ নিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী

ডোমকলে ভয়াবহ নৌকাডুবি, নিখোঁজ 3- খোঁজ নিলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী

“নদীর এপার কহে ছাড়িয়া নিশ্বাস, ওপারেতে সর্বসুখ আমার বিশ্বাস”- কবিতায় সর্বসুখের কথা থাকলেও ডোমকলের গরিবপুরের ভৈরব নদীতে এখন সেই সুখের বদলে তৈরি হয়েছে আতঙ্ক। সূত্রের খবর, গত বৃহস্পতিবার রাতে এই ভৈরবনদী পারাপারের সময় মধ্য গরিবপুরে নৌকাটি ডুবে যায়। কোনোক্রমে কিছু যাত্রী সাতার কেটে পাড়ে এসে পৌছোলে তাঁদের অনেককেই ডোমকল মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এখনও নিখোঁজ হিসাবেই রয়েছেন দেড় বছরের শিশু আলামিন শেখ, 40 বছরের জহুরা বিবি এবং তাঁর 4 বছরের মেয়ে শালমা খাতুন।

এদিকে এই তিনজনকে উদ্ধারের জন্য স্পিড বোড এবং দেশি নৌকা নিয়ে এনডিআরএফ এবং ডিএমজি বাহিনী নদীতে টহল দিলেও কারও হদিশ মেলেনি। জল ঘোলা এবং ভেতরে আগাছা থাকায় ডুবুরিদের এই উদ্ধারকার্যে সমস্যা হচ্ছে বলে জানান উদ্ধারকারীরা। এদিকে এখনও পর্যন্ত নিখোঁজ কাউকে খুজে না পাওয়ায় এদিন উদ্ধারকারী দলকে লক্ষ করে ঢিল ছোড়েন উত্তেজিত গ্রামবাসীরা।

গ্রামবাসীদের দাবি, নৌকায় সেদিন 70 জন যাত্রী থাকলেও প্রশাসন দাবি করছে 45 থেকে 50 জন রয়েছে। এদিকে এই উদ্ধারকার্য প্রসঙ্গে এদিন মুর্শিদাবাদ জেলাশাসক পি উলগাথান এবং পুলিশ সুপার গোটা ঘটনার তদারকি করেন। তবে শুধু জেলা প্রশাসনই নয়, এই পুরো ঘটনায় উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জেলা তৃনমূলের সভাপতি সুব্রত সাহাকে গোটা ঘটনার তদারকি করতে বলেন। সেইমত এদিন দুপুরে বহরমপুরের গোরাবাজার ঘাটে গিয়ে মাঝি ও যাত্রীদের সাথে কথাও বলেন সুব্রত সাহা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পরে এই তৃনমূল বিধায়ক বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী বড়ই উদ্বিগ্ন। এই ব্যাপারে তিনি এখানে আসতেও চেয়েছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকায় ওনাকে আসতে বারন করেছি।” এদিন এই ঘাট পরিদর্শনে গিয়ে নৌকায় যাতে আর অতিরিক্ত যাত্রী তোলা না হয় সেই ব্যাপারে মাঝিদের নির্দেশও দিয়েছেন তৃনমূলের সুব্রত সাহা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!