এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > রোগা হতে চান আজ থেকেই ঘরোয়া উপায়েই ওজন কমান

রোগা হতে চান আজ থেকেই ঘরোয়া উপায়েই ওজন কমান

অনেক কসরত করছেন কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছেনা। নিয়ম করে জিমে যাওয়া জগিং আরও কত শারীরিক কসরত। খাওয়া দাওয়া প্রায় ছেড়ে দিয়েছেন বললেই চলে। কিন্তু হলে কী হবে শরীরের মেদ ঝরার কোনো লক্ষণই নেই। তবে এসবের আর দরকার নেই । এখন কতগুলি ঘরোয়া টোটকা খাদ্য তালিকায় রাখলেই আপনি অতি সহজেই আকর্ষনীয় চেহারার অধিকারী হয়ে উঠবেন। এবার দেখে নেওয়া যাক কী সেই উপায় –

অনেক কসরত করছেন কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছে না। নিয়ম করে জিমে যাওয়া, জগিং ছাড়াও আরও কত শারীরিক কসরত। খাওয়া দাওয়া প্রায় ছেড়ে দিয়েছেন বললেই চলে। কিন্তু হলে কী হবে শরীরের মেদ ঝরার কোনো লক্ষণ নেই। তবে এসবের আর দরকার নেই । এখন কতগুলি ঘরোয়া টোটকা খাদ্য তালিকায় রাখলেই আপনি অতি সহজেই হয়ে উঠবেন আকর্ষনীয় চেহারার অধিকারী। দেখে নেওয়া যাক কী সেই উপায় –

প্রিয় বন্ধু বাংলার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ – Priyo Bandhu Bengali

—————————————————————————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

১. গাজরের রস: গাজরে রয়েছে প্রচুর ফাইবার। ক্যালোরি নামমাত্র। ফলে সকালে ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস গাজরের রস আপনাকে দুপুর পর্যন্ত নিশ্চিত ভাবেই পেট ভরিয়ে রাখতে সাহায্য করবে। কম খাওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবেই কমতে শুরু করবে ওজন। গাজর কাঁচা বা রস করে খাওয়া যেতেই পারে। তবে গাজরের সঙ্গে অল্প পরিমাণে আপেল, কমলালেবু এবং আদার কুচি দিয়ে রস বানিয়ে খেলে স্বাদেও হবে অন্যরকম উপযোগীতার দিক থেকেও হবে অতুলনীয়।

২. করলার রস: করলার নাম শুনলেই মুখে বিকৃতি আসতে পারে। কিন্তু এর উপযোগীতা জানলে অবাক হতে হয়। মেদ ঝরাতে চাইলে এর মতো উপযোগী খাদ্য প্রায় নেই। কারণ করলার রস লিভার থেকে বাইল রস নিঃসরনে সহায়তা করে। ফলে অতিরিক্ত মেদ উৎপাদনকারী উপাদানগুলি আমাদের শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। যা আখেরে আমাদের ওজন কমাতে সহায়তা করে।

৩. শশার রস: যে সমস্ত ফলে জলের পরিমাণ বেশি, সেগুলিতে ক্যালরির পরিমাণ কম থাকে। শশার ক্ষেত্রেও বিষয় একই। শশার প্রধান দুই কার্যকরী উপাদান ফাইবার এবং জল। যা অনেকক্ষণ পেট ভর্র্তি রাখার পাশাপাশি চর্বি গলাতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আর শসার সঙ্গে পুদিনা পাতা এবং লেবুর রস মিশিয়ে খেতে পারলে আরও দ্রুত ফল পাওয়া সম্ভব।

৪. আমলকীর রস: সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর আমলকীর রস একপ্রকার অমৃতসম। এই রস হজমশক্তি বাড়ানোর সঙ্গে মেদ কমাতেও সাহায্য করবে। খালি পেটে আমলকীর রস খেলে তো কোনো কথা নেই! উপযোগীতা কয়েক গুন বৃদ্ধি পাবে।

এবার এই ঘরোয়া পদ্ধতি অনুসরণ করে দেখা যেতেই পারেক কতদূর কী হয়!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!