এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > আছড়ে পড়তে চলেছে ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ – কি করবেন আর কি করবেন না? কি বলছে NDMA?

আছড়ে পড়তে চলেছে ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ – কি করবেন আর কি করবেন না? কি বলছে NDMA?

ঘন্টায় ১৮৫-২০০ কিমি বেগে ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ আছড়ে পড়তে চলেছে ওড়িশার পুরীতে। আগামীকাল সকাল ১০-১২ টার দিকে পুরী উপকূলে আছড়ে পড়ার পর আগামী শনিবার দুই মেদিনীপুর হয়ে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগনা, নদীয়া হয়ে এই ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশে চলে যাবে। ফলে, আগামী শনিবার থেকে সোমবার – সংশ্লিষ্ট জেলাগুলিতে কার্যত তান্ডব চালাবে এই ঘূর্ণিঝড়। ইতিমধ্যেই প্রশাসনের তরফে সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

তবে এই ঘূর্ণিঝড়ের সময়ে কি করা উচিত আর কি করা উচিত নয়, তার একটি তালিকা জন সাধারনের সুবিধার জন্য প্রকাশ করেছে ন্যাশনাল ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটি (NDMA)। এক নজরে দেখে নিন – এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময়ে – কি করবেন আর কি করবেন না, তার তালিকা –

ঘূর্ণিঝড়ের ‘ফণী’ আছড়ে পড়ার পূর্বে –
১. গুজব ছড়াবেন না, গুজবে কান দেবেন না। শান্ত থাকুন, অযথা ভয় পাবেন না।
২. দুর্যোগের সময় যোগাযোগ রক্ষার্থে মোবাইলে ভালো করে চার্জ দিয়ে রাখুন, এসএমএস পরিষেবা ব্যবহার করুন।
৩. আবহাওয়ার আপডেট পাওয়ার জন্য রেডিও, টিভি বা সংবাদমাধ্যমের খবরের দিকে সজাগ দৃষ্টি রাখুন
৪. আপনার ডকুমেন্টস ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নথি ‘ওয়াটার-প্রুফ’ প্যাকেটের মধ্যে ভালো করে রাখুন।
৫. আপৎকালীন সময়ের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সহ একটি কিট প্রস্তুত রাখুন। যা অসুবিধাজনক পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা দিতে ও বাঁচতে সাহায্য করবে।
৬. নিজেদের বাড়ি সুরক্ষিত রাখুন, প্রয়োজনীয় মেরামত করিয়ে নিন। কোনো ছুঁচোলো জিনিস অরক্ষিত অবস্থায় রাখবেন না।
৭. বাড়িতে পোষ্য থাকলে তাদের বেঁধে রাখবেন না, যাতে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে তারা নিজেদের সুরক্ষিত করতে পারে বা নিরাপদ স্থানে চলে যেতে পারে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

মৎসজীবীদের জন্য বিশেষ নির্দেশিকা –
১. নিজেদের রেডিও সেট তৈরী রাখুন, অতিরিক্ত ব্যাটারি সঙ্গে রাখুন।
২. নিজেদের নৌকা সুরক্ষিত স্থানে বেঁধে রাখুন।
৩. কোনো অবস্থাতেই সমুদ্রে যাবেন না।

ঘূর্ণিঝড়ের ‘ফণী’ আছড়ে পড়ার সময় ও পরবর্তীকালে –
যদি বাড়ির ভিতরে থাকেন –
১. ইলেকট্রিকের মেন সুইচ ও গ্যাসের নব বন্ধ রাখুন।
২. ভালো করে দরজা-জানলা বন্ধ রাখুন।
৩. যদি আপনার বাড়ি নড়বড়ে হয়, তাহলে ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ার আগেই নিরাপদ স্থানে চলে যান।
৪. রেডিও বা ট্রানজিস্টরে নিয়মিত খবর নিন স্থানীয় পরিস্থিতি সম্পর্কে।
৫. জল ফুটিয়ে বা ক্লোরিন মিশিয়ে শুদ্ধ করে তবেই পান করুন।
৬. সরকারি নির্দেশিকাতেই একমাত্র কর্ণপাত করুন।

যদি বাড়ির বাইরে থাকেন –
১. ক্ষতিগ্রস্ত কোনো বাড়ির মধ্যে ঢুকবেন না।
২. ভেঙে পড়া ইলেকট্রিকের খুঁটি বা তার এবং অন্যান্য ধারালো বা ছুঁচোলো বস্তুর প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখুন।
৩. যত শীঘ্র সম্ভব নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যান।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!