এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > সীমান্তবর্তী জেলাগুলি অনুপ্রবেশকারীদের দখলে চলে গিয়েছে: বিস্ফোরক দাবি দিলীপ ঘোষের

সীমান্তবর্তী জেলাগুলি অনুপ্রবেশকারীদের দখলে চলে গিয়েছে: বিস্ফোরক দাবি দিলীপ ঘোষের

Priyo Bandhu Media

কদিন আগে মন্দিরবাজারের বিজেপি কর্মী শিবপদ সর্দার খুন হন। অভিযোগ ওঠে শাসকদল তৃনমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। রবিবার সেই দলীয় কর্মীর মৃত্যুতে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ধর্ণা মঞ্চে উপস্থিত হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাজ্য নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অন্যান্যরা। আর সেখানেই উপস্থিত হয়ে অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে ফের বিস্ফোরক মন্তব্য করে শিরোনামে উঠে এলেন দিলীপ ঘোষ।

এদিন তিনি বলেন, “এই রাজ্যের সীমান্তবর্তী জেলাগুলো অনুপ্রবেশকারীদের দখলে চলে গেছে। এখানে সুযোগ নিয়ে ঘাটি গাড়ছে জঙ্গিরা। যা দেশের নিরাপত্তার পক্ষে বিপজ্জনক”। কিন্তু হঠাৎ বিজেপির রাজ্য সভাপতি এহিন দাবি করলেন কেন? তাহলে কি তাঁর কাছে এসম্পর্কে কোনো তথ্য আছে না কি শুধুই রাজ্যের তৃনমূলকে চাপে ফেলতে বিজেপির এই কৌশল – এই নিয়ে তীব্র জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে!

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন ফের দলীয় কর্মী খুনে তৃনমূল ও পুলিশকে কাঠগড়ায় তুলে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, “বাংলায় গনতন্ত্র নেই, সন্ত্রাসের বাতাবরন তৈরি হয়েছে”। এদিন পুলিশকে কার্যত হুমকি দিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, “শক্তিপদ সর্দারের খুনিরা ঘুরে বেড়াচ্ছে। আর থানা সব জেনেও চুপ। পুলিশকে বলছি, নিরপেক্ষভাবে আইন মেনে কাজ করুন। বিজেপি ক্ষমতায় এলে এই পুলিশকর্মীদের ভাগাড়ে বদলি করে দেওয়া হবে”।

এদিন এনআরসিতে বিরোধীতার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক স্বার্থসিদ্ধির কথা উল্লেখ করে তৃনমূলকে খোঁচা দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। এদিকে এদিন বিকেলে মৃত দলীয় নেতা শিবপদ সর্দারের বাড়িতে গিয়ে তাঁর স্ত্রীর হাতে তিন লক্ষ টাকা তুলে দেন দিলীপবাবু। সব মিলিয়ে দলীয় কর্মী খুনের প্রতিবাদে ধর্ণা মঞ্চ থেকে রাজ্যে অনুপ্রবেশকারীদের সম্পর্কে বিস্ফোরক তথ্য তুলে ধরে রাজ্য সরকার ও পুলিশ প্রশাসনকে একযোগে কটাক্ষ করলেন দিলীপ ঘোষ।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!