এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > ভারতী ঘোষের বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

ভারতী ঘোষের বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ

পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ছিলেন। এমনকি প্রকাশ্য জনসভায় মুখ্যমন্ত্রীকে তিনি ‘জঙ্গলমহলের মা’ বলে আখ্যা দেন, যা নিয়ে সেই সময় রীতিমত সরগরম হয়ে ওঠে রাজ্য-রাজনীতি। কিন্তু সবং উপনির্বাচন মিটতে না মিটতেই পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারের পদ থেকে তাঁকে ব্যারাকপুর কমিশনারেটের তিন নম্বর ব্যাটালিয়নের অত্যন্ত কম গুরুত্বপূর্ণ কমান্ডান্ট পদে বদলি করে দেয় রাজ্য সরকার। আর তিনি সেই নতুন দায়িত্ত্ব গ্রহণ না করে, রাজ্য পুলিশের ডিজি সুরজিৎ করপুরকায়স্থকে তিনি স্বেচ্ছাবসর চেয়ে চিঠি দিয়েছেন এবং সঙ্গে ৯০ দিনের ছুটিও চেয়ে নিয়েছেন।
প্রসঙ্গত, রাজনৈতিক মহলের গুঞ্জন, একসময় মুকল রায়ের খুবই ঘনিষ্ঠ ছিলেন ভারতী ঘোষ, এমনকি মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরও নাকি তলে তলে তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক রেখে চলছিলেন ভারতীদেবী বলে তৃণমূলের কিছু নেতার অভিযোগ। আর তাই ভারতী ঘোষ ইস্তফা দিতেই জোর রাজনৈতিক গুঞ্জন শুরু হয় যে তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন। আজ সে প্রসঙ্গে বালুরঘাটে এই দলীয় অনুষ্ঠানে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানান, বিজেপিতে যোগ দিতে ভারতী ঘোষ কতটা ইচ্ছুক তাই নিয়ে সন্দেহের অবকাশ রয়েছে। পুলিশ সুপার থাকার সময় বিজেপি নেতাদের অনেক কষ্ট দিয়েছেন, তাঁর আচরণ পুলিশ সুপার সুলভ কম তৃণমূল নেত্রী বেশি মনে হত। ভারতী ঘোষের মত অনেকেই মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ ছিলেন এবং এখনও রয়েছেন। ভবিষ্যতে কি হবে বা হতে পারে তা এই মুহূর্তে কারোই জানা নেই। এমনকি প্রভাবশালী অনেকেই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। কিন্তু কাকে দলে নেওয়া হবে সেই ইচ্ছেটা একমাত্র দলই করবে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!