এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পিআরটি স্কেল ও অন্যান্য দাবিতে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্ত্বে কলকাতার রাজপথে ঝড় তুলতে চলেছে বিজেপি শিক্ষক সেল

পিআরটি স্কেল ও অন্যান্য দাবিতে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্ত্বে কলকাতার রাজপথে ঝড় তুলতে চলেছে বিজেপি শিক্ষক সেল


পশ্চিমবঙ্গের সমগ্র শিক্ষক সমাজ বর্তমান সরকারের শিক্ষার পরিকাঠামো ও বেতন বঞ্চনার বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে। শিক্ষার হাল ফেরাতে ও শিক্ষকদের বেতন বঞ্চনার অবসান ঘটাতে সবসময় শিক্ষক সমাজের পাশে আছেন – এই বার্তা দিলেন পশ্চিমবঙ্গের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপবাবুর নির্দেশে নতুন বছরের শুরুতেই পথে নামছে ভারতীয় জনতা পার্টির শিক্ষক সংগঠন বিজেপি শিক্ষক সেল।

যেসব দাবিতে বিজেপি শিক্ষক সেল পথে নামছে সেগুলি হল-
১. অবিলম্বে প্রাথমিক শিক্ষকদের পিআরটি স্কেল প্রদান এবং অন্যান্য সকল শিক্ষক ও রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের কেন্দ্রীয় হারে বেতন প্রদান করতে হবে
২. অবিলম্বে বকেয়া ডিএ-সহ পে-কমিশন প্রকাশ করে ১.১.২০১৬ থেকে কার্যকরী করতে হবে
৩. পার্শ্ব শিক্ষক, এমএসকে বা এসএসকে, ভোকেশনাল, শিক্ষাবন্ধু ও অন্যান্য সহায়ক শিক্ষকদের কেন্দ্রীয় সমগ্র শিক্ষা অভিযান প্রস্তাবিত বেতন রাজ্যকে মানতে হবে
৪. রাজ্যের ৪০% অর্থাৎ প্রায় চার লক্ষাধিক শূন্যপদে দ্রুত নিয়োগ করতে হবে
৫. এসএসসির মাধ্যমে নিয়োজিত উচ্চ প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক হবু শিক্ষকদের অবিলম্বে নিয়োগপত্র দিতে হবে।

উপরোক্ত দাবিতে আগামী ৬ই জানুয়ারি, রবিবার, সকাল সাড়ে ১১ টায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে কলকাতার মহম্মদ আলি পার্ক থেকে ধর্মতলার ওয়াই চ্যানেল পর্যন্ত বিজেপি শিক্ষক সেলের মহামিছিল অনুষ্ঠিত হবে এবং মিছিল শেষে ওয়াই চ্যানেলে ধর্ণা অবস্থান করা হবে। সবশেষে বিধানসভা অভিযানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই প্রসঙ্গে, বিজেপি শিক্ষক সেলের রাজ্য কনভেনার দীপল বিশ্বাস জানান, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ছাড়াও এই মহা মিছিলে উপস্থিত থাকবেন বিজেপি রাজ্য সহ-সভাপতি সুভাষ সরকার এবং বিজেপির কেন্দ্রীয় ও রাজ্যের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্ববৃন্দ। দীপলবাবু বলেন “ভারতবর্ষের অন্যান্য সমস্ত রাজ্যে পে-কমিশন চালু হয়ে গেছে এবং সব ধরনের শিক্ষকরা কেন্দ্রীয় হারে বেতন পাচ্ছেন। ব্যতিক্রম শুধুমাত্র তৃণমূল কংগ্রেস শাসিত আমাদের রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ”।

দীপালবাবু আরও বলেন, “তাই এই বঞ্চনার অবসান ঘটাতে আগামী ৬ ই জানুয়ারি বিজেপি শিক্ষক সেলের মহামিছিল ও ধর্ণা অবস্থানে রাজ্যের সমস্ত শিক্ষক, রাজ্য সরকারী কর্মচারী, শিক্ষার সঙ্গে যুক্ত সমস্ত ধরনের শিক্ষা সহায়ক এবং হবু শিক্ষকদের দলমত নির্বিশেষে যোগদান করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি”। বিজেপি সূত্রের খবর রাজ্যের শিক্ষার সঙ্গে যুক্ত সকলের এই বেতন বৈষম্য নিয়ে দিলীপবাবু বিজেপি শিক্ষক সেলকে সবরকমভাবে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

অন্যদিকে, বিজেপি শিক্ষক সেলের প্রাথমিক শাখার রাজ্য কো-ইনচার্জ সব্যসাচী ঘোষ জানান, প্রাথমিক শিক্ষকদের পিআরটি স্কেলের দাবিতে বিজেপি শিক্ষক সেল সবসময় প্রাথমিক শিক্ষকদের পাশে আছে এবং আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। কয়েকদিন আগেই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে প্রাথমিক শিক্ষকদের পিআরটি স্কেলের দাবিতে মিছিল সংগঠিত হয়েছিল এবং রাজ্যপালকে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছিল। পিআরটি আন্দোলনকে জোরদার করতে আগামী ৬ই জানুয়ারির মহামিছিলে দলমত নির্বিশেষে সকল প্রাথমিক শিক্ষকদের যোগদান করার আহ্বান জানান তিনি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!