এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > সাংসদ দিলীপ ঘোষের এলাকায় ঢুকেই হুঙ্কার – পার্টিটাই উঠে যাচ্ছে আর বাহিনী দিয়ে কি হবে!

সাংসদ দিলীপ ঘোষের এলাকায় ঢুকেই হুঙ্কার – পার্টিটাই উঠে যাচ্ছে আর বাহিনী দিয়ে কি হবে!

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ মেদিনীপুরের জয়ী সাংসদ হিসাবে আজই প্রথম নিজের সংসদীয় এলাকায় পৌঁছান। তৃণমূলের হেভিওয়েট প্রার্থী মানস ভূঁইয়াকে কার্যত দাঁড়াতে না দিয়ে তিনি মেদিনীপুর থেকে বিজেপির টিকিটে জয়ী হয়ে দিল্লি যান। আপাতত দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদির দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হয়ে গেছে। হয়ে গেছে অন্যান্য মন্ত্রীদের শপথগ্রহন ও মন্ত্রক বন্টন।

দেশের সপ্তদশ লোকসভার কাজ শুরু হতে হতে জুনের মাঝামাঝি। ফলে দিলীপবাবুরা ফিরে এসেছেন বাংলায়। এরই মাঝে আজ সময় করে নিজের সংসদীয় এলাকা পরিদর্শনে যান তিনি। ঘরের ছেলেকে সামনে পেয়ে আবেগে ভাসেন মেদিনীপুরবাসী। ফুল-মালা-চন্দন-স্লোগানে বরণ করে নেন তাঁদের নবনির্বাচিত সাংসদকে। একদিকে দেউলিতে বিজেপির বিজয়োল্লাস, অন্যদিকে মেদিনীপুর লোকসভা থেকে জয়লাভের পর নারায়ণগড় ব্লকে প্রথম জনসংযোগ দিলীপ ঘোষের।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রথমে নারায়ণগড় ব্লকের বাখরাবাদে বিজেপির কর্মী সমর্থকেরা সংবর্ধনা জানান বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। পরে নারায়ণগড় ব্লকের পাতলি গ্রামে যান তিনি। প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনের দিনে পাতলি গ্রামে বিজেপির পোলিং এজেন্ট পিন্টু ভূঁইয়াকে মারধর করে শাসকদলের লোকজন বলে অভিযোগ ওঠে। পরে পুলিশ তাঁকে হাসপাতালে ভর্তির অছিলায় গ্রেফতার করে বলেও অভিযোগ জানায় বিজেপি। পিন্টু ভূঁইয়ার পাশাপাশি গ্রেফতার করা হয় প্রায় ১১ জন বিজেপি কর্মীকে। আর তাই মেদিনীপুরের মাটিতে পা দিয়েই সেখানে ছুটে যান দিলীপবাবু।

পিন্টু ভূঁইয়ার পরিবারের সাথে দেখা করে তিনি আশ্বস্ত করেন যত শীঘ্র সম্ভব গ্রেফতার হওয়ায় বিজেপি কর্মীদের ছাড়িয়ে আনার ব্যবস্থা করেবন তিনি। পরে দিলীপবাবু সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিভিন্ন বিষয়ে মুখ খোলেন। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান, জয় শ্রীরাম বলায় গেরুয়া সমর্থকদের উপর লাঠিচার্জ, বিজেপিকে রুখতে তৃণমূল নেত্রীর বিভিন্ন বাহিনী গঠন করা – সব বিষয়েই খোলাখুলি বক্তব্য রাখেন তিনি। রীতিমত হেঁয়ালি করে বলেন, তৃণমূল পার্টিটাই উঠে যাবে আর উনি বাহিনী খুলে কি করবেন? আর কি বলেছেন মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ? দেখে নিন নীচের ভিডিওতে –

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!