এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মমতাকে চূড়ান্ত চ্যালেঞ্জ দিলীপের! বাংলাতেই প্রথম CAB চালু করার চূড়ান্ত হুঁশিয়ারি!

মমতাকে চূড়ান্ত চ্যালেঞ্জ দিলীপের! বাংলাতেই প্রথম CAB চালু করার চূড়ান্ত হুঁশিয়ারি!

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বা সিএবি নিয়ে উত্তাল প্রায় গোটা দেশই। এর মধ্যে এই বিলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে সবথেকে বেশি বিরোধিতা করেছে বাংলার শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। ত্ব লোকসভা এবং রাজ্যসভা দু-জায়গাতেই বহু চেষ্টা করেও এই বিল আটকাতে পারে নি তারা। বিজেপি তথা এনডিএ শরিকদের প্রচেষ্টার সামনে খড়কুটোর মত উড়ে গেছে তৃণমূল কংগ্রেস সহ অন্যান্য বিরোধীদের প্রতিবাদ।

আর এরপরেই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এই বিলে সই কে দেওয়ার পর তা কার্যত আইনে পরিণত হয়ে গেছে। যা গোটা দেশের জন্য লাগু হয়ে গেছে। কিন্তু বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট জানিয়েছেন – রাজ্যের ক্ষমতাবলে তিনি নাকি এই আইন বাংলায় লাগু হতে দেবেন না। সিএবির বিরুদ্ধে বৃহত্তর আন্দোলন সংগঠিত করে তিনি তা বাংলায় আটকে দেবেন।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

কিন্তু, এবার তৃণমূল নেত্রীকে কার্যত এর বিরুদ্ধে চূড়ান্ত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন বঙ্গ-বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলায় এই আইনের প্রয়োগ হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিংবা তার দল তৃণমূল কংগ্রেস – কেউই এতে বাধা দিতে পারবে না। পশ্চিমবঙ্গই হবে প্রথম রাজ্য, যেখানে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন প্রথম প্রয়োগ করা হবে।

দিলীপবাবু আরও জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই বিল নিয়ে কেন বিরোধিতা করছেন, তা স্পষ্ট করুন। কেননা তিনি ভয় পাচ্ছেন, এতে তাঁর দলের ভোট ব্যাঙ্কে আঘাত আসবে। আসলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুপ্রবেশকারীদের পক্ষে, হিন্দু শরণার্থীদের পক্ষে নয়। দীর্ঘদিন ধরেই হিন্দু শরণার্থীরা এই আইনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। আসলে, ৩৭০ ধারা বাতিল হোক, কিংবা নোটবাতিল, কোনও আন্দোলনই কেন্দ্রীয় সরকারকে থামাতে পারেনি। আর তাই সিএবি বাংলায় প্রথম প্রয়োগ হওয়াও তিনি আটকাতে পারবেন না!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!