এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মালদা-মুর্শিদাবাদ-বীরভূম > খরচ কমানো নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগকে কটাক্ষ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের

খরচ কমানো নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগকে কটাক্ষ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের

বিরোধী দলনেতা হিসাবে প্রশাসনের সমালোচনা করাই তাঁর কাজ। তাঁর বিভিন্ন মন্তব্যে বিতর্কও তৈরি হয়েছে। কিন্তু তার পরেও থামেননি দিলীপ ঘোষ। বহরমপুরে দলীয় কর্মশালায় যোগ দিয়ে ঠিক সেভাবেই মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বক্তব্য শানিয়েছেন দিলীপ। সঙ্গে তৃণমূল প্রার্থীদের বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার খোলা আহ্বান জানান তিনি।
মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের কর্মশালায় হাজির ছিলেন দলের জেলা ও ব্লক কার্যকর্তা সহ পঞ্চায়েত নির্বাচনের দলীয় প্রার্থীরা। কর্মশালার পর সাংবাদিক স্মমেলনে রাজ্য সরকারের খরচ কমানো নিয়ে প্রথম কটাক্ষ করেন তৃণমূল নেত্রীকে। বলেন, প্রশাসন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোনোদিনই চালাননি।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

চালানোর সদিচ্ছাও নেই। আর উনি খরচ কমানোর কথা বলছেন!’ এরপরই ব্যাঙ্গের সুরে বলেন, ‘এতদিন প্রশাসনিক বৈঠকের নামে জঙ্গলে, গ্রামে ঘুরে বেড়িয়েছেন। এভাবে কয়েকশো কোটি টাকার মোচ্ছব করেছেন। ওনার স্টন্টবাজি মানুষ এখন বুঝতে পেরেছে। তাঁরা বিরক্ত। তাই খুব জলদিই পরিবর্তন আসতে চলেছে রাজ্যে।’
সম্প্রতি রাজ্য কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল। এদিন কোনো নেতার নাম না করে দিলীপ খোলা আহ্বান জানান, ‘যারা বিজেপিতে আসতে চান তাদের সকলের জন্য দরজা খোলা।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘পুরুলিয়ার পুলিশের দাপটে কেউ তৃনমূলের টিকিট নিলে এই নয় যে তিনি আর ফিরবেন না। প্রশাসনের চাপে প্রাণের ভয়ে দল পাল্টাতেই পারেন। তাঁদের আবার ফিরিয়ে আনার দায়িত্ব বঙ্গের পদ্মশিবিরের।’

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!