এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুলিশকে হুমকি দিয়ে বড়সড় অস্বস্তিতে দিলীপ ঘোষ, যেকোন মুহূর্তে নেওয়া হতে পারে আইনি পদক্ষেপ

পুলিশকে হুমকি দিয়ে বড়সড় অস্বস্তিতে দিলীপ ঘোষ, যেকোন মুহূর্তে নেওয়া হতে পারে আইনি পদক্ষেপ

প্রকাশ্য সমাবেশে আপত্তিকর মন্তব্যের জেরে আবারও বিতর্কে জড়ালেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলায় বিজেপির আইন অমান্য কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হলো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

জলপাইগুড়ির জেলায় জেলা শাসকের দফতর চত্বরে এই সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপির জেলা নেতৃত্ব এবং কর্মী ও সমর্থকেরা। এদিনের কর্মসূচীতে দিলীপ বাবু তাঁর ভাষণে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের একপ্রকার হুমকি দিয়েই বললেন, “গুলির বদলা গুলি, খুনের বদলা খুন। কার কোথায় গুলি লাগবে কেউ জানে না।” রাজ্য সভাপতির এহেন উত্তেজক ভাষণে স্বভাবতই উদ্দীপ্ত হয়ে ওঠে ঐ সভায় উপস্থিত বিজেপির দলীয় কর্মী ও সমর্থকেরা। এরপরেই রাজ্য পুলিশের কর্মীদের হুঁশিয়ারী দিয়েই বিজেপি সভাপতি বললেন, “কয়েকদিন পর নিজেদের পুলিসকর্মীদের পরিবারের সদস্যরা নিজেদের পরিচয় দিতে লজ্জা পাবেন।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সাধারণ মানুষ এদের সামাজিক বয়কট করবে।” এদিন গেরুয়া শিবিরের আইন অমাণ্য আন্দোলনকে কেন্দ্র করে জেলা জুড়ে ব্যাওইক উত্তেজনা ছড়ায়। বিজেপি কর্মীরা ১৪৪ ধারা অমান্য করে পুলিসের তৈরী করা প্রথম ব্যারিকেড এবং দ্বিতীয় ব্যারিকেড ভেঙে ফেলেন। এমনকি যে সমস্ত পুলিশ কর্মীরা বিজেপি দলের কর্মী সমর্থকদের কাজে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন তাদের সাথে ও মারামারি শুরু করে গেরুয়া শিবির সমর্থকেরা। পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে দেখে ঘটনাস্থলে জেলার পুলিশ সুপার উপস্থিত হন। বিজেপি নেতার এই মন্তব্যের কথা জানতে পেরে জেলা পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বললেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতির বিরুদ্ধে শীঘ্রই যথাযোগ্য আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Top
error: Content is protected !!