এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ফের কুরুচিকর মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন দিলীপ ঘোষ, অস্বস্তিতে বিজেপি

ফের কুরুচিকর মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন দিলীপ ঘোষ, অস্বস্তিতে বিজেপি

বিজেপির পঞ্চায়েত সমিতি ভাঙাতে এলে তৃণমূল কর্মীদের পুঁতে ফেলা হবে, উর্দি খুলে চামড়া তুলে নেওয়া হবে পুলিশের।পুলিশ বলে ক্ষমা করা হবে না । ঠিক এই ভাষাতেই আক্রমণ চালালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ।

উল্লেখ্য পাঁচ রাজ্যে হারের পর কেশিয়াড়ি সভাই বিজেপির প্রথম সভা, ঠিক সেই সভা থেকেই তৃণমূলের পাশাপাশি রাজ্য সরকারকে হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি ।

তৃণমূলকে ছাগলের তৃতীয় সন্তান বলেও কটাক্ষ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি হয় কেশিয়াড়িতে । পঞ্চায়েত সমিতির জয়ী প্রার্থীর নিরিখে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায় বিজেপি।

সম্প্রতি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেশিয়াড়িতে এসে সাংগঠনিক ক্ষমতা তুলে দেন রাজ্যে পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর হাতে।উদ্দেশ্য ক্ষমতা ফিরিয়ে এনে কেশিয়াড়ি পঞ্চায়েত দখল করা।

এ প্রসঙ্গে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবি, কংগ্রেস ভেঙেছেন,সিপিএম ভেঙেছেন, বিজেপিকে ভাঙতে চাইলে সরকার ভেঙে দেবো।

কংগ্রেস প্রসঙ্গে বিজেপি রাজ্য সভাপতির দাবি , পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেস আইসিইউতে চলে গিয়েছে । তাই ক্ষমতা দখলে উঠে দাঁড়ানোর ক্ষমতা নেই কংগ্রেসের । বিজেপির এই হুংকারে তৃণমূল কি আদৌ পিছিয়ে যায় সেটাই এখন দেখার বিষয় ।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজনৈতিক নেতাদের যোগাযোগ থাকায় নির্বাচনের আগে আমজনতার কাছে তাঁদের প্রকৃত স্বরূপ তুলে ধরতেই তোড়জোড় শুরু করেছে কেন্দ্র,এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!