এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > জিভে লাগাম টানার ব্যাবস্থা করার হুঁশিয়ারি দিলীপ ঘোষকে ,সৌজন্যে তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী

জিভে লাগাম টানার ব্যাবস্থা করার হুঁশিয়ারি দিলীপ ঘোষকে ,সৌজন্যে তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী

রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের আচরণে রীতিমতো ক্ষুব্ধ শাসকদল। দিলীপবাবু যদি এবার থেকে সংযত না হন তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁসিয়ারী দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহিলা সংগঠনের সভাপতি তথা মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। প্রয়োজন পড়লে দলের সঙ্গে আলোচনা করে দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে আইনি পথে যাওয়ার পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি।

বললেন,”দিলীপ ঘোষ যে নোংরা ভাষায় কথায় বলেন বাংলার মানুষ তা জেনে গিয়েছেন। আর তাই বিজেপির সঙ্গ ছেড়ে পালাতে চাইছে মানুষ।” শুধু তাই নয়,রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব যদি এবার বিরোধীদের তোপ দাগতে অশালীন ভাষা ব্যবহার করেন তাহলে ওনার জিভে লাগাম পড়ানোর ব্যবস্থা করা হবে বলেও বিজেপি নেতৃত্বের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা দেবী।

দিলীপ ঘোষ বরাবারই শাসকদলের বিরুদ্ধে সরব হতে গিয়ে বক্তব্যে মাঝে মধ্যেই শালীনতার সীমাটুকু ভুলে যান। এ কথা অজানা নয় কারো। তার জন্য রাজ্য রাজনীতিতে তিনি অত্যন্ত চর্চিত একজন ব্যক্তিত্ব। তাঁর ভাষা ব্যবহার নিয়ে আগেও বিরোধীমহল থেকে অভিযোগ উঠেছে। কড়া আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁসিয়ারী দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সব হুমকিকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে নিজস্ব ফর্মে ফিরেছেন তিনি বারবার।

সম্প্রতি দক্ষিণ ২৪ পরগনার এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে পার্ক স্ট্রিট গনধর্ষণকাণ্ড প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে ‘বেহায়া মেয়েছেলে’ বলে কটূক্তি করেন দিলীপ ঘোষ। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে তথা একজন নারীকে এহেন অশালীন আখ্যা দেওয়া জন্য তীব্র বিতর্ক ছড়ায় রাজনৈতিকমহলে। রাগে ফেটে পড়েন তৃণমূলের মহিলা সংসদ। তারপরই মহিলা সংগঠনের সভাপতি সংযত হওয়ার কড়া হুমকি দেন দিলীপ বাবুকে।

উল্লেখ্য,দিন দুয়েক আগেই বাঁকুড়ার একটি জনসভাতে দলীয় সংগঠন মজবুত করার বার্তা দেওয়া পাশাপাশি তৃণমূলের সমালোচনায় মুখর হতে দেখা গিয়েছিল রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব নেতা তথা খড়গপুরের বিধায়ক দিলীপ ঘোষকে। সেখানে জনসমক্ষে দাঁড়িয়ে ১৯’ এর লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের উন্নয়নকে রাস্তায় শুইয়ে দেবে বলে কটাক্ষও করতে দেখা যায় তাকে।

শুধু তাই নয়,হুঁসিয়ারী দিতে ছাড়েন নি বীরভূমের তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলকেও। মুখ্যমন্ত্রীর প্রিয় কেষ্টকে কটক্ষা করে বলেন, “কলকাতা থেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এসে অক্সিজেন দিলে অক্সিজেন সিলিন্ডারটাই কেড়ে নেব।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজ্য পুলিশও বাঁচানোর ক্ষমতায় থাকবে না বলে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন তিনি। লাগাতার দিলীপ ঘোষের এসব অসংযত শাসকদল বিরোধী কথাবার্তায় ধৈর্য্যের বাঁধ ভেঙেছে তৃণমূলের। তাই এবার তিনি ‘জিভে লাগাম’ না টানলে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া আইনি ব্যবস্থা নিতে পিছপা হবে না শাসকদল এটাই স্পষ্টভাবে বুঝিয়ে দিলেন দাপুটে তৃণমূল নেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!