এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ‘রাজ্যে পরিবর্তনের সূচনা হয়েছে’ বড়সড় দাবি দিলীপ ঘোষের

‘রাজ্যে পরিবর্তনের সূচনা হয়েছে’ বড়সড় দাবি দিলীপ ঘোষের

লোকসভা নির্বাচনের পর রাজ্যের চালচিত্র বদলে যাবে বলে দীর্ঘদিন ধরেই দাবি করতে শুরু করেছে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল হয়ে ওঠা গেরুয়া শিবির। একদা বামেদের সরকারকে সরিয়ে গত 2011 সালে রাজ্যে ক্ষমতায় আসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস। আর এবার তৃণমূল কংগ্রেসের আমলে গণতন্ত্র প্রহসনে পরিণত হয়েছে বলে রাজ্যে ফের পরিবর্তনের দাবিতে আওয়াজ তুলতে শুরু করে বিরোধীরা।

এমনকি বর্তমানে কেন্দ্রের মসনদ থেকে বিজেপিকে সরানোর জন্য যখন বাংলার 42 টি আসনের মধ্যে 42 টি আসনই দখলের টার্গেট নিয়েছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস, ঠিক তখনই বাংলা থেকে বিপুলসংখ্যক আসন নিজেদের দখলে রাখতে তৎপর হয়ে উঠেছে বিজেপিও। বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন, লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের উপরই নির্ভর করছে যে, রাজ্যে রাজনৈতিক সমীকরণে ঠিক কী হতে চলেছে?

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

ইতিমধ্যেই মোট তিন দফায় 10 টি কেন্দ্রের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। কে কেমন ফল করবে এই নির্বাচন হয়ে যাওয়া 10 টি কেন্দ্রে? সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “প্রথম কয়েক দফায় যে 10 টি আসনে রাজ্যে নির্বাচন হয়েছে তার একটিও তৃণমূল পাবে না। উত্তরবঙ্গে বিজেপি আশানুরূপ ফল করবে। আমরা রাজ্যে যে 23 টি আসনের কথা বলেছিলাম সেটা আমরা পার করবই। ইতিমধ্যে স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে রাজ্যের ক্ষমতা থেকে এবার তৃণমূল করতে চলেছে।”

অন্যদিকে বারেবারেই নির্বাচন কমিশনের কাছে সুষ্ঠু এবং অবাধ নির্বাচনের দাবি নিয়ে যাওয়াতেই প্রতি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী দেওয়া হচ্ছে বলে জানান বিজেপির রাজ্য সভাপতি। পাশাপাশি বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সন্ত্রাসের কথা তুলে ধরেও এদিন রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ।

তিনি বলেন, “পঞ্চায়েত নির্বাচন বা তার পরবর্তী সময় থেকে রাজ্যে ভোটের সন্ত্রাস চলেছে। সাধারন মানুষদের অনেকেই নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেনি। তবে এবার সেই অবস্থান বদল হচ্ছে। সাধারণ মানুষ ভোট দিতে আসছেন।” সব মিলিয়ে এবার “রাজ্যে পরিবর্তন আসন্ন” বলে মন্তব্য করে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল তুলে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

Top
error: Content is protected !!