এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ফের বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপ ঘোষের, ফের অস্বস্তিতে বিজেপি

ফের বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপ ঘোষের, ফের অস্বস্তিতে বিজেপি

Priyo Bandhu Media

দলকে অস্বস্তিতে ফেলে ফের বিতর্কিত মন্তব্যে নাম জড়ালো রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের। লোকসভা ভোটের প্রস্তুতি পর্বে দফায় দফায় শাসকদলের বিরুদ্ধে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়াচ্ছেন দিলীপ ঘোষ। তৃণমূলের বিরুদ্ধে মন্তব্য করতে শালীনতার সীমাকেও অতিক্রম করে চলেছেন অবলীলায়।

শাসকদলের হুমকিকে অগ্রাহ্য করেই বারবার স্বমহিমায় ফিরতে দেখা যাচ্ছে তাকে। এদিন আরামবাগের জনসভা থেকেই শাসকদলকে ‘কুকুর’ সম্বোধন করে আক্রমণ শানালেন রাজ্যের পদ্মবাহিনীর সেনাপতি। বললেন,’হাতে বাঁশ নিয়ে তৈরি থাকুন। রথযাত্রায় যারা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছে, তাদের কুকুরে মতো ছুটিয়ে মারব।’ দিলীপ বাবুর এই ধরণের মন্তব্যের পর রাজ্য রাজনৈতিকমহলে সমালোচনার ঝড় উঠে যায়।

প্রসঙ্গত, রথযাত্রা কর্মসূচি নিয়ে বিজেপির সঙ্গে শাসকদলের দ্বন্দ্ব চলছে মাসখানেক ধরে। বারবার অনুমতি চেয়েও রাজ্যে রথযাত্রা করার অনুমতি না মেলায় রাজ্যসরকারের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে হয় বিজেপিকে। হাইকোর্টের নির্দেশেই ফের আলোচনায় বসে বিজেপি-তৃণমূল। কিন্তু দীর্ঘদিন অপেক্ষার পরও ফলাফল একই। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত হবে এই কারণ দেখিয়ে ফের বিজেপি প্রস্তাবিত রথযাত্রা আটকে দিল রাজ্যসরকার।

এরপর থেকেই ক্ষোভে ফুষছে বিজেপি। তারই জলন্ত প্রমাণ আরামবাগের সভায় দিলীপ ঘোষের শাসকদল বিরোধী মন্তব্য। এমনটাি মনে করছেন বিশ্লেষকরা। দিলীপ বাবুর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিও দলীয় কর্মসূচিতে রাজ্যে এসে রাজ্যসরকারকে বিঁধতে ভুললেন না তিনি। বললেন,’রাজ্যে গণতন্ত্র নেই। রথযাত্রা নিয়ে বাংলায় যা চলছে, তা থেকে সব বোঝা যায়। সারা দেশ পশ্চিমবঙ্গের এই চেহারা দেখছে।’

রথযাত্রার নিশ্চয়তার জন্যে ফের হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে বিজেপি। মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি রয়েছে। তবে রথযাত্রা পন্ড হলে রাজ্য জুড়ে পদযাত্রায় নামবে বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের দফায় দফায় রাজ্যে এনে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সভা করা হবে। এমনটাই হুঁসিয়ারী মুরলিধর লেনের কর্তাদের।

অন্যদিকে,রথযাত্রার নতুন দিনক্ষণও তৈরি রয়েছে বিজেপির। আদালত অনুমতি দিলেই ২২,২৪ এবং ২৬ ডিসেম্বর নির্ধারিত রুটে রথ নামাবে বিজেপি। তবে আদালতের রায়কে অমান্য করে কিছু করা হবে না,এমনটাও জানিয়েছে দিলীপ ঘোষ। তবে রথযাত্রা নিয়ে আদালতের রায়ের উপরে যে ভরসা নেই,এমনটাই স্পষ্ট দিলীপ বাবুর কথায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সেজন্যেই তো রথযাত্রার বিকল্প হিসাবে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে আইন অমান্য কর্মসূচি করার ভাবনা চিন্তা রয়েছে রাজ্য বিজেপির। বছর ঘুরতেই নরেন্দ্র মোদী,অমিত শাহের মতো কেন্দ্রীয় নেতাদের এনে সভা করার পরিকল্পনা রয়েছে বিজেপির রাজ্যনেতৃত্বদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!