এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > নীলনকশা চূড়ান্ত করতে আজ দিল্লিতে অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে দিলীপ ঘোষ

নীলনকশা চূড়ান্ত করতে আজ দিল্লিতে অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে দিলীপ ঘোষ

দিল্লি সফরে যাচ্ছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। জাতীয় বিজেপি সুপ্রিমো অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে বসেই চূড়ান্ত হবে রথযাত্রার প্রস্তাবিত রুট। আগেরদিনই কোলকাতায় রথযাত্রার রুটম্যাপ চূড়ান্ত করতে রাজ্য বিজেপির দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় বঙ্গ বিজেপির নেতৃত্বদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

স্থির করা হয়েছে,তিনটি রথ যাত্রা করানো হবে আলিপুরদুয়ার,তারাপীঠ এবং গঙ্গাসাগর থেকে। ৪৫ দিনের কর্মসূচিতে রাজ্যের ৪২ টি লোকসভা কেন্দ্রের উপর দিয়ে টানা হবে এই রথ। প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে একটি করে বড় সভা করারও পরিকল্পনা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় নেতা-মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে। তবে রথযাত্রার অন্তিম দিন অর্থাৎ ২৩ জানুয়ারী বিগ্রেডো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হাজির করানো হবে বলেও ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। তবে ওদিন মোদীজি উপস্থিত থাকলেও বিগ্রড কর্মসূচি গ্রহন করা হবে কিনা সে ব্যাপারে চূড়ান্ত কিছুই করা হয়নি এখনো অব্দি। প্রধানমন্ত্রী কখন সময় দিতে পারবেন সেটাও ঠিক করা হয়নি। তবে এটা জানা গেছে,মোদীজি ওদিন সময় দিতে না পারলেও কেন্দ্রীয় বিজেপির প্রবীন নেতৃত্বরা ওদিন থাকতে পারেন। এদিকে, রথযাত্রা কর্মসূচি কবে শেষ করা হবে,সেটাও এখনে চূড়ান্ত করা হয়নি। তবে জানা যাচ্ছে,লোকসভা নির্বাচনী প্রচারের উদ্দেশ্যেই এ বছরের শেষের দিকে অর্থাৎ ডিসেম্বর মাসে বিজেপি রথযাত্রা শুরু হওয়ার কথা।

এদিকে,রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে, এ চলতি মাসের ১১ তারিখ অমিত শাহ যে সভা করবেন রাজ্যে,তাতে কোনো ছাউনি তৈরি করা হবে না। সম্প্রতি মেদিনীপুরে বিজেপির জনসভায় ছাউনি ভেঙে পড়ার দুর্ঘটনার জেরেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন,রাজ্য বিজেপি নেতারা,এমনটাই মনে করছেন অনেকে। নতুন করে ছাউনি কেলেঙ্কারি নিয়ে আর কোনো বির্তক চান না রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বরা,এমনটাই জল্পনা। দলীয় সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে,অমিত শাহের সভার জন্যে আগে থেকেই পুলিশ প্রশাসনের কাছে পাঁচটি জায়গার আবেদন করে রেখেছে রাজ্য বিজেপি। আবেদন করতে এদিন বিজেপি যুব মোর্চা নেতৃত্বরা লালবাজার যান। প্রতিনিধি দলে ছিলেন যুব মোর্চার কেন্দ্রীয় নেতা সৌরভ চৌধুরী,সৌরভ শিকদার,রাজ্য সভাপতি দেবজিৎ সরকার। ভিক্টোরিয়া হাউজ,শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়,মেয়ো রোড,ডোরিনা ক্রসিং ও মেট্রো চ্যানেল-এই পাঁচটি জায়গার জন্য আবেদেন করা হয়েছে। উল্লেখ্য বিজেপি সুপ্রিমোর সভার কর্মসূচির জন্যে গতকাল বিজেপির রাজ্য দফতরে বৈঠক করেছিলেন দলীয় যুব মোর্চার নেতৃত্ব। এই বৈঠকে হাজির ছিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!