এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > “দিদিকে বলো” নিয়ে তৃণমূলকে কার্যত ধুয়ে দিলেন বাবুল সুপ্রিয়! জানুন বিস্তারিত

“দিদিকে বলো” নিয়ে তৃণমূলকে কার্যত ধুয়ে দিলেন বাবুল সুপ্রিয়! জানুন বিস্তারিত

লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে তৃণমূলকে টেক্কা দিয়ে বিরোধী স্থানে উঠে এসে বিজেপি শাসক দল তৃণমূলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলতে শুরু করেছে। যার ফলে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পরেই প্রশান্ত কিশোরের প্ল্যানে গোটা দলকে “দিদিকে বলো” কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জনসংযোগে পাঠিয়ে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে তৃণমূল এই জনসংযোগ প্রকল্প করলেও তা আদতে বিজেপির নকল করা বলে বিভিন্ন সময় বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্বরা অভিযোগ করেছে। আর এবার তৃণমূলের এই জনসংযোগ কর্মসূচিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করলেন আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

সূত্রের খবর, বুধবার ও বৃহস্পতিবার আসানসোলে দুদিনের কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসেন এই বিজেপি সাংসদ। আর সেখানেই রানীগঞ্জের একটি পার্টি অফিসের উদ্বোধন করে “দিদিকে বলো” প্রকল্প নিয়ে মুখ খোলেন তিনি। যেখানে বাবুল সুপ্রিয় বলেন, “এটা পুরোপুরি ফ্লপ কর্মসূচি। কোটি কোটি টাকা খরচ করে পুরো ব্যাপারটাই একটা মজা হয়ে গিয়েছে। আমরা কিশোর কুমারের গান শুনি। আমাদের প্রশান্ত কিশোর লাগে না।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, “শুনেছি দিদিকে বলো অ্যাপে অভিযোগ জানাতে গেলে অভিযোগকারী কোন রাজনৈতিক দলের, তা জানতে চাওয়া হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করতে হলে দলের নাম কেন করতে হবে! আসলে এই কর্মসূচির গোড়াতেই যথেষ্ট গলদ রয়েছে।”

এদিকে এদিন বাবুল সুপ্রিয় জন্মাষ্টমী উপলক্ষে স্থানীয় এক হরিমন্দিরের গানের অনুষ্ঠানে ঢুকে সাধারণ মানুষের সঙ্গে ব্যাপক জণসংযোগ করেন। পাশাপাশি দোকানে দাঁড়িয়ে তিনি চা খেতে খেতেও সাধারণ মানুষের নানা কথা শোনেন। শুধু তাই নয়, নির্বাচনের আগে “এই তৃণমূল আর না” করে ব্যাপক জনপ্রিয় হওয়া এই বিজেপি সাংসদ এদিন “জয় শ্রীরাম” ইস্যুতে প্যারোডি ফরম্যাটে এক নতুন গান শোনান।

অন্যদিকে “দিদিকে বলো, হরি বলো” স্লোগানের মধ্য দিয়েও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন বাবুল সুপ্রিয়। সব মিলিয়ে তৃণমূলের জনসংযোগ কর্মসূচি “দিদিকে বলো” নিয়ে কার্যত রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে তুলোধোনা করলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!