এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস জামানায় হয়েছে অন্তত ১,৪০০ উন্নয়ন, তুলে ধরলেন শীর্ষনেতা

রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস জামানায় হয়েছে অন্তত ১,৪০০ উন্নয়ন, তুলে ধরলেন শীর্ষনেতা

আজ থেকে শুরু হল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বহু প্রতীক্ষিত পঞ্চায়েতের ‘হাই-টেক’ প্রচার। ‘পাঁচটায় পঞ্চায়েত’ নামে এই বিশেষ ফেসবুক লাইভ প্রোগ্রামের সূচনা আজ হল রাজ্যসভার পরিষদীয় দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েনের হাত ধরে। তিনি এদিন স্পষ্ট করে দেন, এই অনুষ্ঠান কোনও কুৎসা করার জন্য নয়, বিগত সাত বছরে রাজ্য জুড়ে যে অসংখ্য কাজ হয়েছে তার খতিয়ান আমরা ধীরে ধীরে তুলে ধরব। সেইমত তৃণমূল কংগ্রেসের ১০ টি কাজের খতিয়ান নিয়ে তিনি কথা বলেন আজ। যদিও তিনি দাবি করেন অন্তত ১,৪০০ উন্নয়নের কাজ হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে, তাই এইভাবে ১০ টি করে উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরতে অন্তত ১৪০ দিন সময় লাগবে। তিনি আরও জানান আগামী ১২ মে পর্যন্ত প্রত্যেকদিন এইভাবে ১০ টি করে উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরবেন বিভিন্ন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা-মন্ত্রী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

ডেরেক ও’ব্রায়েন আজ যে ১০ টি উন্নয়নের কথা বললেন –
১. পরিকল্পনা খাতে – ২০১০-১১ সালে খরচ হয়েছিল ১২ হাজার কোটি টাকার কাছাকাছি, তা বর্তমানে ৫ গুন বেড়ে হয়েছে প্রায় ৫৮ হাজার কোটি টাকা
২. খাদ্য সংরক্ষন – ২০১ সালে যা হাত ১২ হাজার মেট্রিক টন, তা বর্তমানে বেড়ে হয়েছে ৬.১০ লক্ষ মেট্রিক টন
৩. সবার জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা – ২০১১-১২ তে বার্ষিক খরচ হত ২৯৬ কোটি টাকা, বর্তমানে তা হয় ৮৫৭ কোটি টাকা
৪. লোকপ্রসার প্রকল্প – লোকশিল্পীদের যে রাজ্য সরকার সাহায্য করে ২০১৫-১৬ সালে সেই সংখ্যা ছিল ৬০ হাজার, বর্তমানে তা প্রায় ২ লক্ষ
৫. ১০০ দিনের কাজ – শ্রমদিবস তৈরির ক্ষেত্রে জাতীয় গড় ৬ লক্ষ প্রতি বছর, বাংলায় তা ২৮ লক্ষ প্রতি বছর
৬. বাংলায় পঞ্চায়েত দপ্তরের বাজেট – ২০১৩-১৪ সালে ৩ হাজার কোটি টাকা, বর্তমানে তা ১৯ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে
৭. পথ দুর্ঘটনার সংখ্যা – ২০১৬ সালের জানুয়ারী-মার্চ মাসে যা ছিল সাড়ে ৩ হাজার, ২০১৮ সালের জানুয়ারী-মার্চ মাসে তা কমে দাঁড়িয়েছে ২,৭০০ তে (প্রায় ২২%), সৌজন্যে সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ
৮. নির্মল জেলা – লক্ষ্যমাত্রা পূরণের ক্ষেত্রে জাতীয় স্তরে গড় ৫৭%, বাংলায় গড় ৯৫%
৯. শিশু-স্বাস্থ্য পরিষেবা – বাংলায় ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে স্বাভাবিকের থেকে কম ওজনের শিশু ২০০৫-০৬ সালে ছিল ৪২%, ২০১৫-১৬ সালে তা কমে হয়েছে ৩৩%
১০. নারী-স্বাস্থ্য পরিষেবা – বাংলায় ১৫-৪৯ বছর বয়সী নারীদের ক্ষেত্রে স্বাভাবিকের থেকে কম ওজনের নারী ২০০৫-০৬ সালে ছিল ৪৬%, ২০১৫-১৬ সালে তা কমে হয়েছে ২৪%

Top
error: Content is protected !!