এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বিজেপি পাকিস্তান নামে নির্বাচনে জিততে চাইছে – দাবি ডেরেকের

বিজেপি পাকিস্তান নামে নির্বাচনে জিততে চাইছে – দাবি ডেরেকের

Priyo Bandhu Media

গত 14 ই ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠনের পক্ষ থেকে ভারতে চালানো নৃশংস হামলায় জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় থাকা দেশের প্রায় 42 জন বীর জওয়ান শহীদ হন। আর এই ঘটনার পর দেশের প্রতিটি রাজনৈতিক দল দলমত নির্বিশেষে ভারত সরকারের পাশে থাকবে বলে বার্তা দিলেও গত 26 শে ফেব্রুয়ারি যখন ভারতীয় বায়ুসেনা সেই পাকিস্তানের জঙ্গিঘাঁটিতে প্রত্যাঘাত হানে, ঠিক তারপরই আদৌ পাকিস্থানে ভারতীয় বায়ুসেনার সাফল্য মিলেছে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা যায় তৃণমূল নেত্রী তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

এমনকি জওয়ানদের নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার রাজনীতি করছে বলেও অভিযোগ করেন তৃণমূল নেত্রী। আর এবার নেত্রীর দেখানো পথে হেটে জি 24 ঘন্টায় এসে এক সাক্ষাৎকারে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ করলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন। সারা দেশের মানুষ যখন দেশের সেনাবাহিনীকে স্যালুট করছে, ঠিক তখনই পাকিস্তানের মাটিতে আদৌ জঙ্গিঘাঁটি উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে কিনা সেই ব্যাপারে কেন প্রশ্ন তুলছে তৃণমূল?

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে ডেরেক ও ব্রায়েন বলেন, “আমরা সেনাবাহিনীকে কোনোভাবেই ছোট করছি না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেনাবাহিনী কে স্যালুট করেন কিন্তু বিরোধীদের কেউ শহীদদের ছবি ব্যবহার করা না সত্ত্বেও মদি জি কি ভাবে শহীদদের ব্যবহার করছেন তা তো আমরা দেখতেই পাচ্ছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি প্রকাশ্যে বলছেন যে সেনাবাহিনী ওদের ব্যক্তিগত সম্পত্তি এরকম রাজনীতি নিয়ে কেউ করেনি। যেটা এখন বিজেপি করছে।”

কিন্তু যেখানে সবাই পাকিস্তানে জঙ্গিঘাঁটি গুঁড়িয়ে দেওয়া নিয়ে বায়ুসেনার সাফল্যতে কিছুটা হলেও আশাবাদী, ঠিক সেখানেই কেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা-নেত্রীরা এই ব্যাপারে সেই বায়ুসেনার সাফল্য নিয়ে প্রমাণ চাইছেন? এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূল সাংসদ বলেন, “সেনাবাহিনীর থেকে কেউ প্রমাণ চাইছে না। কিন্তু 300 নম্বরটা কোথা থেকে আসছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। আসলে ওরা (বিজেপি) খুব ভাল করেই জানে যে ওরা আর ক্ষমতায় ফিরতে পারবে না, তাই নম্বর বাড়ানোর চেষ্টা করছে।”

অন্যদিকে বিজেপি পাকিস্তানের নামে এবারের লোকসভা নির্বাচন জিততে চাইছে বলেও অভিযোগ করেন ডেরেক ও ব্রায়েন। পাশাপাশি বিগত পাঁচ বছরের সেনাবাহিনীর সুরক্ষায় কেন্দ্রের বিজেপি সরকার কোনো কাজ করেনি বলেও এদিন গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে থাকতে দেখা যায় ডেরেক ও ব্রায়েনকে। সব মিলিয়ে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গেল তৃনমূল সাংসদকে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!