এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > দিল্লি থেকে শিক্ষা নিয়ে টার্গেট বাংলা, মার্চের শুরুতেই রাজ্যে শাহ!

দিল্লি থেকে শিক্ষা নিয়ে টার্গেট বাংলা, মার্চের শুরুতেই রাজ্যে শাহ!

লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় বিজেপির ফলাফল ভাল হয়েছিল। 18 টি আসন পাওয়া বঙ্গ বিজেপি উজ্জীবিত হয়ে ডাক দিয়েছিল, একুশে তৃণমূল সাফ হয়ে যাবে। কিন্তু যেভাবে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলোতে লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময়কালে সাফ হয়ে যেতে শুরু করেছিল সেই ভারতীয় জনতা পার্টি, তাতে তাদের এই আওয়াজ কতটা বাস্তব রূপ নেবে, তা নিয়ে নানা মহলে তৈরি হয়েছিল সংশয়। সর্বশেষ সম্প্রতি দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি জয়ের চেষ্টা করলেও এবং নানা মেশিনারি কাজে লাগলেও, তাতে তারা সফলতা পায়নি।

শেষ পর্যন্ত সেখানে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতা দখল করেছে আম আদমি পার্টি। এদিকে দিল্লিতে বিজেপি পর্যদুস্ত হওয়ায় বাংলা থেকে বিজেপি আগামী 2021 এ মুছে যাবে বলে দাবি করতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু যেনতেন প্রকারেণ বাংলা দখলের স্বপ্ন দেখা ভারতীয় জনতা পার্টি এবার বাংলায় তাদের টার্গেট পূরণ করতে চাইছেন। সূত্রের খবর, দিল্লির হার থেকে শিক্ষা নিয়ে, এবার বাংলা দখলের জন্য ময়দানে নামছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। জানা গেছে, আগামী পয়লা মার্চ বাংলায় এসে একটি সভা করতে পারেন তিনি।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

যেখানে সিএএ এবং এনপিআরের সমর্থনে বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতির। আর দিল্লিতে মুখ থুবড়ে পড়ার পরে বাংলায় অমিত শাহের এই সফর নিয়ে এখন রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জোর গুঞ্জন। একাংশ বলছেন, দিল্লির পরাজয় যাতে বাংলার কেশাগ্র স্পর্শ করতে না পারে এবং দিল্লিতে বিজেপির পরাজয় নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাতে খুব বেশি প্রচার করতে না পারেন, সেজন্য বাংলায় এসে সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলার চেষ্টা করবেন বিজেপির অমিত শাহ।

পাশাপাশি বিরোধিতার দিক দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে যে বিষয়গুলো ব্যাকফুটে ফেলেছে, রাজ্যে সভা করে সেই বিষয়গুলো তুলে ধরে তৃণমূল কংগ্রেসকে কোণঠাসা করবেন বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি বলে মনে করছে পর্যবেক্ষকরা। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, রাজ্যে এসে তৃণমূলের বিরুদ্ধে নিজের সুর কতটা চওড়া করতে পারেন বিজেপির অমিত শাহ! সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!