এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কেন দেবশ্রীকে নিয়ে অসহিষ্ণু হয়ে উঠলেন শোভন, জেনে নিন

কেন দেবশ্রীকে নিয়ে অসহিষ্ণু হয়ে উঠলেন শোভন, জেনে নিন

গত বুধবার তৃনমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য দিল্লিতে বিজেপির সদর দপ্তরে যান শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং তার বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তারা যখন বিজেপির সদর দপ্তরে পা রাখেন, ঠিক তখনই তারা দেখতে পান যে সেখানে রয়েছেন রায়দিঘির তৃণমূল বিধায়ক দেবশ্রী রায়ও।

আর এরপরই জানতে পারা যায় যে, শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সাথে বিজেপিতে যোগ দেবেন অভিনেত্রী বিধায়ক দেবশ্রী রায়ও। তবে দেবশ্রীদেবী বিজেপিতে যোগ দিলে তিনি বিজেপিতে নাম লেখাবেন না বলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। পরে অবশ্য দেবশ্রী রায় নয়, বরঞ্চ শোভনবাবুর মতকে মান্যতা দিয়ে শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং তার বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়েরই পদ্ম শিবিরে অভিষেক ঘটে।

কিন্তু এই দেবশ্রী রায়ের সঙ্গে অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের। তবে সেই দেবশ্রীদেবী শোভনবাবুর সঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিতে চাইলে কেন সেখানে আপত্তি তুললেন শোভন চট্টোপাধ্যায়! এখন তা নিয়েই উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। এদিন বিজেপিতে যোগদানের পর এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে দেবশ্রী রায়কে নিয়ে কেন তার আপত্তি, তা স্পষ্ট করে দিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।

সূত্রের খবর এদিন এই প্রসঙ্গে কলকাতার প্রাক্তন মেয়র বলেন, “আমার পারিবারিক গোলযোগের অংশ ছিলেন দেবশ্রী রায়। রায়দীঘিতে উনি উপস্থিত থাকতেন।” তবে রায়দিঘি নিয়ে তৃণমূলের যে আলাদা স্ট্যান্ড রয়েছে, তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও জানতেন বলে জানিয়ে দেন সদ্য প্রাক্তন এই তৃণমূল নেতা।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে বুধবার শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি দপ্তরে যাওয়ার সময় তাদের গাড়ির পেছনে আরও দুটো গাড়ি তাদের ফলো করছিল বলে তারা অভিযোগ তোলেন। আর এর মধ্যেই তৃতীয় গাড়িতে ছিলেন দেবশ্রী রায় বলে জানান সেই শোভনবাবু এবং বৈশাখী দেবী।

এমনকি দেবশ্রী রায়কে বিজেপি দপ্তরে পাঠানো কারও ষড়যন্ত্র বলে পরোক্ষে প্রাক্তন দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে দেখা গেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একদা প্রিয় ভাই কাননকে। সব মিলিয়ে এবার দেবশ্রী রায় সম্পর্কে পর্দা ফাঁস করলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!