এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > দাড়িভিট স্কুল ও রাজ্য সরকারের অবস্থান নিয়ে ক্রমশ ঝড় উঠছে রাজ্য রাজনীতিতে

দাড়িভিট স্কুল ও রাজ্য সরকারের অবস্থান নিয়ে ক্রমশ ঝড় উঠছে রাজ্য রাজনীতিতে

লোকসভা নির্বাচন এগিয়ে আসতে না আসতেই বিভিন্ন ইস্যুতে সরকারের সমালোচনায় মুখর হয়েছে রাজ্যের বিরোধী দলগুলো। এবার দীর্ঘ সময় ধরে রাজ্যের অধিকাংশ বিদ্যালয়ে একই পরিচালন কমিটি থাকায় সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমানে রাজ্যের বিরোধীদের কাছে সবথেকে তরতাজা ইস্যু হল উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরের দাড়িভিট কান্ড। যা নিয়ে উঠতে-বসতে এখন সরকারকে তুলোধোনা করছে বাম,কংগ্রেস এবং বিজেপি। কিন্তু সেই দাড়িভিট স্কুলের পরিচালনা কমিটির মেয়াদ তিন বছর পেরিয়ে গেলেও এখনও সেখানে নতুন পরিচালন কমিটি গঠনই করা হয়নি।

যেই প্রসঙ্গে গত শুক্রবারই নিজের বাড়িতে এক সাংবাদিক বৈঠক করে সেই দাড়িভিটের পরিচালন কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে প্রশাসক বসানো হয়েছে বলে জানান খোদ রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে শুধু দাড়িভিট নয়, রাজ্যের এমন অনেক বহু স্কুল রয়েছে যেখানে বিগত তিন বছর ধরে একই পরিচালন সমিতির সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছেন। আর এরই মধ্যে অন্যতম পূর্ব মেদিনীপুর জেলা। সূত্রের খবর, এখানে প্রায় 700 স্কুলে সেই পুরনো পরিচালন কমিটির সদস্যদের পদই বহাল রয়েছে। কিন্তু কেন এইভাবে পরিচালন সমিতির মেয়াদ বৃদ্ধি করছে সরকার?

একাংশের মতে, বিগত পঞ্চায়েত ভোট এবং আসন্ন লোকসভা ভোটের কারণেই এই মেয়াদ বৃদ্ধি। জানা গেছে, আগামী 2019 র 31শে মার্চ পর্যন্ত এই কমিটিই তাদের কাজ চালিয়ে যাবে। আর এখানেই অনেকের প্রশ্ন যে, রাজ্যের সিংহভাগ স্কুলে পুরনো পরিচালন কমিটি থাকা সত্ত্বেও সেগুলো না ভেঙে কেন শুধুমাত্র দাড়িভিটেই এই প্রশাসক বসানো হলো?‌

আর এই ঘটনায় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে শুরু করেছে বিভিন্ন বিরোধী দলগুলি। এদিন এই প্রসঙ্গে শিক্ষক নেতা স্বপন মন্ডল বলেন, “পরিচালন কমিটি গুলোতে সরকার মনোনীত লোকজনই বসে রয়েছেন। যে সমস্ত জায়গায় নতুন পরিচালন কমিটি হয়নি সেগুলো না ভেঙে কেন শুধুমাত্র দাড়িভিটেই প্রশাসক বসানো হচ্ছে?”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর তাই দাড়িভিটের পাশাপাশি সমস্ত স্কুলে প্রশাসক বসানোর আওয়াজ তুলে এই পরিচালন কমিটির মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণা বাতিলেরও দাবি জানাচ্ছে বিরোধীরা। আর এই ঘটনায় যে ফের নতুন করে সরগরম হতে চলেছে রাজ্য রাজনীতি তা বলাই যায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!