এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > তৃণমূল থেকে বিজেপিতে নেতাদের যোগদান নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত জানালেন কৈলাশ বিজয়বর্গী

তৃণমূল থেকে বিজেপিতে নেতাদের যোগদান নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত জানালেন কৈলাশ বিজয়বর্গী

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়িয়ে বিজেপি বাংলা থেকে 18 টি আসন নিজেদের দখলে রেখেছে। আর বাংলায় বিজেপির এই অভূতপূর্ব ফলাফলের পরই দিকে দিকে তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা, বিধায়ক, কাউন্সিলররা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে শুরু করেছেন। তবে বিরোধী দল থেকে প্রচুর নেতাকর্মীরা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোয় এখন বিজেপির অন্দরে তৈরি হয়েছে বিভ্রান্তি। কেননা তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, যারা দুর্নীতিগ্রস্ত তারাই বিজেপিতে নাম লেখাচ্ছেন।

কিছুদিন আগেই লাভপুরের তৃণমূল বিধায়ক মনিরুল ইসলাম বিজেপিতে যোগদান করলে বিজেপির একাংশ প্রবল ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। যার জেরে অস্বস্তিতে পড়তে হয় গেরুয়া শিবিরের নেতাদের। আর এই পরিপেক্ষিতে এবার দলে নেওয়ার ব্যাপারে সকলকে এক নতুন নিদান দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা বাংলার পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

সূত্রের খবর, রবিবার কলকাতার আইসিসিআর অডিটোরিয়ামে সদস্য অভিযান নিয়ে বিজেপির পক্ষ থেকে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। আর সেখানেই অন্য দল থেকে আসা নেতাকর্মীদের নেওয়ার ব্যাপারে কিছুটা সর্তকতা অবলম্বন করতে বলে রাজ্য নেতাদের উদ্দেশ্যে কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, “কাটমানি যারা নিয়েছেন, তাদের দলে নেওয়া হবে না।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, বাংলায় গেরুয়া শিবিরের উত্থান ঘটার পরেই যেভাবে দিকে দিকে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করতে শুরু করেছেন তৃণমূলের অনেক নেতাকর্মীরা, তাতে তাদের অনেকেই দুর্নীতিগ্রস্ত বলে দলের অন্দরে অভিযোগ উঠেছিল। ফলে সেদিক থেকে বিজেপির নেক্সট টার্গেট 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে দলের স্বচ্ছ ভাবমূর্তি যাতে বজায় রাখা যায়, তার জন্য কোনো দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাকে দলে নেওয়া হবে না বলে এদিন জানিয়ে দিলেন বিজেপির কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

অন্যদিকে দলকে যেমন বৃদ্ধি করতে হবে, ঠিক তেমনই দলে নব্য বনাম আদির দ্বন্দ্ব যাতে না হয়, তার জন্যও এদিন সকলকে সতর্ক করে দিয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। সূত্রের খবর, এদিন এই বৈঠকে উপস্থিত বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক শিবপ্রকাশ বলেন, “দলে নতুন পুরনো ভেদাভেদ করা যাবে না। বিজেপি একটা পরিবার। কেউ দলের সদস্য হয়ে গেলে সে বিজেপি পরিবারে চলে এল।” এদিকে এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাহুল সিনহা বলেন, “কোনমতেই তৃণমূলের অনুকরণ করা যাবে না।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, বিজেপির কাছে এখন প্রধান লক্ষ্য 2021 এর বিধানসভা নির্বাচন। তাই তার আগে দলের সংগঠনের বৃদ্ধি যেমন তাদের কাছে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়, ঠিক তেমনই সেই সংগঠন বৃদ্ধি করতে গিয়ে অন্য দল থেকে আসা নেতাকর্মীদের নিয়ে দলের ভাবমূর্তি যাতে নষ্ট না হয়, তার জন্যও কিছুটা সর্তকতা অবলম্বন করতে চাইছে গেরুয়া শিবির। আর তাই এদিনের বৈঠকে সেই ব্যাপারে সকলকে দিকনির্দেশ করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!