এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > এবার কোটি কোটি টাকার প্রতারণার মুখে রাজ্য সরকারের সংস্থা, মন্ত্রীর নির্দেশে বড় পদক্ষেপ

এবার কোটি কোটি টাকার প্রতারণার মুখে রাজ্য সরকারের সংস্থা, মন্ত্রীর নির্দেশে বড় পদক্ষেপ

বিভিন্ন চিটফান্ডে ইতিমধ্যেই সর্বস্বান্ত হয়েছেন এই রাজ্যের মানুষ। তবে এবার আর কোনো মানুষ নয়, কোটি কোটি টাকার প্রতারণার শিকার হল পশ্চিমবঙ্গ ক্রেতা সমবায় ফেডারেশন। জানা গেছে, রাজ্য সরকারের এই সংস্থাটি একশ্রেণীর অসাধু চালকল মালিকদের হাতে প্রতারিত হয়ে এখন কার্যত হিমশিম খাওয়ার জোগাড়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত 2017 সালের 30 শে জানুয়ারি উত্তর 24 পরগনার হাবরার নগরথুবার মেসার্স লক্ষ্মী বিনায়ক রাইস মিলকে একটি ত্রিপাক্ষিক চুক্তির ভিত্তিতে 600 মেট্রিক টন ধান সরবরাহ করেছিল পশ্চিমবঙ্গ ক্রেতা সমবায় ফেডারেশন বা কনফেড।

জানা গেছে, 88 লক্ষ টাকায় রাজ্যের কৃষকদের কাছ থেকে এই ধান কেনার পর চুক্তির শর্ত মেনে তা থেকে চাল তৈরি করে খাদ্য সরবরাহ দপ্তরকে দেওয়ার কথা থাকলেও তার বিন্দুমাত্র দেওয়া হয়নি। আর সম্প্রতি এই কেলেঙ্কারি সামনে আসতেই কলকাতার বউবাজার থানায় মন্ত্রী অরূপ রায়ের নির্দেশে একটি অভিযোগ দায়ের করেন কনফেডের সিনিয়র অ্যাসিস্টেন্ট সুশান্ত কুমার চক্রবর্তী।

এদিকে সুশান্ত বাবুর এই অভিযোগের ওপর ভিত্তি করে ইতিমধ্যেই সেই অভিযুক্ত চালকল মালিক রাজদীপ রায়, স্ত্রী কবিতা রায় ও মেসার্স লক্ষ্মী বিনায়ক রাইস মিলের সমস্ত পদাধিকারীর বিরুদ্ধে প্রতারণা, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র এবং বিশ্বাসভঙ্গের মতো একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের হয়।

তবে শুধু কলকাতা পুলিশ নয়, সিআইডি কর্তারাও এই ব্যাপারে একটি পৃথক তদন্ত করছেন বলে জানা গেছে। এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় বলেন, “কৃষকরা যাতে ধানের দাম পান সেজন্য কনফিডের মাধ্যমে কৃষকদের থেকে সহায়ক মূল্যে 80% ধান কিনে থাকে। সেই ধান থেকে চাল তৈরির দায়িত্ব রাইস মিলকেই দেওয়া হয়। কিন্তু কিছু অসাধু রাইস মিল রাজ্য সরকারের সঙ্গে তঞ্চকতা করেছে। তাই কনফেডের পক্ষ থেকে এই এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তবে শুধু হাবরা নয়, রাজ্যের যে 3-4 টি রাইস মিল সরকারের সাথে এরকম প্রতারণা করছে তাদের কাউকেই ছাড়া হবে না বলে এ দিন হুঁশিয়ারি দেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।অন্যদিকে এই অসাধু রাইস মিল মালিকদের বিরুদ্ধে সরকারের কাছে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন রাজ্যের রাইস মিল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের কার্যকরী সভাপতি আব্দুল মারেক। সব মিলিয়ে এবার নিজেদের সংস্থা কোটি কোটি টাকার প্রতারণার মুখে পড়তেই বড় পদক্ষেপ নিল রাজ্য সরকার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!